আ’লীগ-বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টকে ‘তারুণ্যের ইশতেহার’ দিলো কোটা আন্দোলনকারীরা

ঢাকা প্রতিনিধি:একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কাছে ‘তারুণ্যের ইশতেহার’ নামে একটি প্রস্তাবনা দিয়েছে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা।

সোমবার বিকেলে আন্দোলনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের দুটি প্রতিনিধি দল এই প্রস্তাবনা পৌঁছে দেয়।
বিকেল ৩টার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যায় আন্দোলনকারীদের একটি প্রতিনিধি দল। ১৮ সদস্যদের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক হাসান।

 

এ সময় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির তাদের ইশতেহারটি গ্রহণ করেন।

এরপর কোটা আন্দোলনের নেতারা পুরানা পল্টনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কার্যালয়ে গিয়ে ‘তারুণ্যের ইশতেহার’ পৌঁছে দেন।

এদিকে, বিকেল ৪টার দিকে ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে গিয়ে ‘তারুণ্যের ইশতেহার’ পৌছে দেন সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খান ও নূরুল হক নূরের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল ।

জানা যায়, ইশতেহারে প্রায় ৪৫টি দাবি রয়েছে। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য দাবিগুলো হচ্ছে-

তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির চাকরিতে কোটার যৌক্তিক সংস্কার আনতে হবে।

চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ করতে হবে। সবার জন্য অভিন্ন বয়সসীমা করতে হবে।

চাকরির আবেদনের ফি সম্পূর্ণ ফ্রি করতে হবে। শিক্ষায় জিডিপির ৫ শতাংশ বা জাতীয় বার্ষিক বাজেটের ২০ শতাংশ বরাদ্দ দিতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা নিতে হবে। এছাড়া প্রশ্নফাঁসবিরোধী সেল গঠন করতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে সান্ধ্যকালীন কোর্স বন্ধ করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বাজেটের ১০ শতাংশ গবেষণায় দিতে হবে, যার ৬ শতাংশ শিক্ষকদের জন্য এবং ৪ শতাংশ হবে ছাত্রদের জন্য।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY