মৃত মানুষের এ শরীর বড়ই দলিত অবহেলিত!! ওপার বাংলার কবি বিজিত গোস্বামী এর কবিতা “দর্পনে মুখ ”

0
103
ওপার বাংলার কবি বিজিত গোস্বামী

দর্পনে মুখ

             বিজিত গোস্বামী।

————–
একটা জলজ‍্যান্ত মানুষ;তার শরীরময় কতো উচাটন
একটা তাজা শরীর হয়তো এভাবেই বাঁচে
জ্বালা সর্বস্ব ক্ষুধার্ত পেটে।
ঝিল পাড়ের আবর্জনা স্তূপে বসতি দুনিয়ার বাইরে
অজীর্ণ জীব বলে পাশের বাড়ির সুয়োরাণি
দুয়োরাণি এঁটো উচ্ছিষ্ট রোজ দেন ছুড়ে।
উচ্ছিষ্ট যতো ছুড়ে দিলেই কাকের মুখে হাসি
ফোটে;তেনারাও খুব খুশি মনেই জানালার ওপাড়ে
ইতর কাকেদের খাবার না দিলে অভিমান করেন।
খাদ‍্যের ব‍্যয় সঙ্কোচ অপভ্রংশগুলো এভাবেই হজম
রুটিন ধরে ধরে।

আজ ঢিলছোঁড়া পাড়ে কঙ্কালসার দেহটা
বড়ই নীরব নিস্তব্ধ!
সুয়োরাণি-দুয়োরাণির কা কা রব শোনে ঝিলটা
পড়ে রয় অকাতরে।
হাসির ফুলঝুরি ওই ক্ষুধার্ত বাঘটা ঘাপটি মেরে
বসেনা উচ্ছিষ্ট ভোজন পাতে।
জানালার ভেতরে উচ্ছিষ্টের আস্তাকুঁড় থালা নেচে উঠেও থেমে যায়
এবার কী হবে! অপাংক্তেয় খাবার লাফিয়ে লাফিয়ে ও পাড়ে
আর পড়বেনা।
কোথায় যেন প্রদীপ নিভে গেছে; কোথায় যেন
নির্ঘুম সত‍্য মরে গেছে।

মুখের লালায় মৃত দেহটা লুলুপ দৃষ্টিতে আর তাকাবে না—
মৃত মানুষের এ শরীর বড়ই দলিত অবহেলিত।

LEAVE A REPLY