তারুণ্যের কবি রাস্কীন চক্রবর্ত্তী এর মাকে নিয়ে জীবন ছোঁয়া অসাধারন কবিতা “পথে আমার মা”

0
247
তারুণ্যের কবি রাস্কীন চক্রবর্ত্তী

পথে আমার মা

                        রাস্কীন চক্রবর্ত্তী

রাত তখন ৯টা কি ১০টা বাজে,সেই দিন।
কোতোয়ালী মোড় থেকে জেলা পরিষদ যাওয়ার রাস্তায় ফুটপাতের একপাশ ঘেষে,
তেল চিটচিটে একটি বালিসে মাথা রেখে নোংরা একটি বেটসিট এর উপরে শুয়ে,
আমার মা প্রসব যন্ত্রনায় ছটফট করছিলো,
আর চিৎকার করতে করতে বলছিলো কেউ আমায় একটু হাসপাতালে নিয়ে যাও,
আমি যে আর পারছি না, পারছি না সহ্য করতে।
ব্যাস্ত নগরীর কেউ তার ডাকের সারা দিলো না।

বরং কেউ কেউ বলছিলো “যেডে এডে পোয়া ব্যায়োর যে না, লজ্জা শরম নাই ওডি”
আমার “মা” তা শুনে নিজের কষ্টকে চেপে রেখে চিৎকার করা বন্ধ করে দিলো,
কিন্তু সেটা আর বেশি সময় চেপে রাখতে পারলেন না,
ক্রমশ বাড়তে লাগিলো প্রসব যন্ত্রনা,
আমার মা কাঁদিতে কাঁদিতে চোখের জলে ভাসিয়ে দিচ্ছিলো তার শোয়ার ওই বেডসিট খানা,
আর ভেজা সেই বেডিসিটখানা আঁকড়ে ধরে যন্ত্রনা সহ্য করার চেষ্টা করছিলো,
তখন আমার মা এর পাশে থাকার কেউ ছিল না, এমন কি আমার বাবা ও না,
তিনি কেবল উনার দায়িত্ব আমার মা এর উপর চাপিয়ে দিয়েই উদাও।
সেই দুঃসময়ে ও আমার মা আমাকে কষ্ট দিতে চাই নি,
চেয়েছিল শত কষ্টের বিনিময়ে আমি যেনো এই পৃথিবীর মুখ দেখি।
আর সেই আশা বুকে বেঁধে,
তার শরীরের রক্ত হরনের মাধাম্যে আমায় জন্ম দিলো,
তখনি মা আমার আনন্দের এক শ্বাস নিলো।
মা আমার তার বুকে কত আদরেই যে রাখলো,
কেবল তিনিই তা উপলব্ধি করিতে পারিলো।
আমার কি ভাগ্য, জন্মের পর আমার বাবার মুখ খানি আমি দেখলাম না,
মা’ই ছিলো সব আমার।
আমার যখন লাগিতো ক্ষিধা,
মা যে আমার করতো না কোন দ্বিধা,
কত জনের কাছেই না যেতো একটু খাবারের আশায়,
কিন্তু আমার মা ফিরে আসতো বুকে বেঁধে নিরাশার।
কেউ দিতো না খাবার আমার মা’ কে,
মা আমার আমাকে কোলে নিয়ে যেতে এক জন থেকে অন্য জনের কাছে,
কেউ দিতো না খাবার কাছে এসে,
বরং বলতো তারা হেসে
কোথা থেকে যে এরা আসে।
এরপরেও কখনো আমার মা আমায় করে নি অবহেলা,
মায়ের আদরে, সোহাগে আর ভালোবাসায় কেটেছে আমার ছোটবেলা।
আমি আজ পড়া-লেখা করে শিক্ষিত হয়ে চাকরি করছি বড় এক কোম্পানিতে।
আজ আমার মা’র থাকতে হয় না সে রাস্তার ফুটপাতে। উনি থাকেন এখন শীততাপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষে।
আমি আজ সে পথের মায়ের সন্তান,
যার আত্মত্যাগ আমাকে এত বড় করেছে
আমার সবটুকু অর্জন আমার পথের মায়ের কারনে।
ভালোবাসি হে পথের মা, ভালোবাসবো সারা জীবন।
বি.দ্র- আজকের এই মহান মা দিবসে আমার ক্ষুদ্র প্রয়াস, আমার সকল মা এর জন্য। অনুরোধ থাকলো কেউ কখনো পথে থাকা সে মায়েদের অবহেলা করবেন না।

LEAVE A REPLY