ঈশ্বরদী বাজারে ব্যবসায়ী নেতার চাঁদাবাজির প্রতিবাদে ব্যবসায়ীদের সংবাদ সম্মেলন

0
83

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি ॥ ঈশ্বরদী বাজারে শিল্প ও বণিক সমিতি অফিসের নামে শিল্প বণিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বাচ্চুর চাঁদাবাজি এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের এক ব্যবসায়ীকে হুমকি দেওয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ঈশ্বরদী বাজারের ব্যাবসায়ীরা। গত মঙ্গলবার ঈশ^রদী বাজারের ব্যাবসায়ীরা চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও পথসভা করায় বণিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বাচ্চু সংবাদ সম্মেলন করেন। এরই প্রতিবাদে আজ শনিবার ঈশ্বরদী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দেন ঈশ্বরদী বাজারের পাল মিস্টান্ন ভান্ডারের মালিক ব্যবসায়ী তাপস কুমার সাহা।

তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, শিল্প বণিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বাচ্চু গত ৯ জানুয়ারী আমার দোকানে এসে আমার নিকট ১৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন, আমি দিতে অস্বিকার করলে তিনি অকথ্য ভাষায় হিন্দু সম্প্রদায় ও জাতী তুলে গালাগালি করে দোকান ভাংচুর করার হুমকি দিয়ে চলে যান। এর আগে চাঁদাবাজি ও হুমকির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও পথসভা করেছে সাধারণ ব্যাবসায়ী ও হিন্দু সম্প্রদায়। এসময় ঈশ্বরদী পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুনিল চক্রবর্তী, যুগ্ম সম্পাদক মিলন কর্মকার, হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুকুমার চক্রবর্তী, জাতীয় আদীবাসী পরিষদের সভাপতি মদন দাস, পূজা উদযাপন পরিষদের পৌর শাখার সভাপতি বাবু পান্ডে, বাংলাদেশ ছাত্র ঐক্য যুব পরিষদের সভাপতি তাপস কুমার সাহা, সাধারণ সম্পাদক অনন্ত কর্মকার, হিন্দু মহাজোটের ঈশ্বরদী শাখার সভাপতি উত্তম কুমার সাহা, আদীবাসী ছাত্র পরিষদ পাবনা জেলা শাখার সভাপতি মিঠুন রবি দাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন, অফিস করার নামে প্রায়ই শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বাচ্চু বাজারের ছোট-বড় বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের নিকট নিজে গিয়ে চাঁদাবাজি করেন। গত মঙ্গলবার রাতে বাজারের পাল মিস্টান্ন ভান্ডারে গিয়ে মালিক তাপস কুমার সাহার নিকট একই কথা বলে চাঁদা চাইলে তিনি দিতে অস্বীকার করেন। এসময় তাকে বুধবার সকালের মধ্যে চাঁদা পৌঁছে না দিলে দোকান ভাংচুর ও ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দেন বলে অভিযোগ করেন তাপস।

LEAVE A REPLY