ভারতের কবি সুনির্মল বসুর কবিতা ” ঘর বাড়ি”

417

। সুনির্মল বসুর কবিতা।।
।। ঘর বাড়ি।।

আমি যখন ভাবনার সমুদ্রে ডুবে যাই,
আমার চোখে তখন পৃথিবীটা সুন্দর হয়ে যায়।
আমার নদী, তোমার নদী একাকার হয়, প্রভেদ দেখি না,
তোমার মতো আমারো তো পাখির ডাকে ঘুম ভাঙ্গে,
আমিও তো তোমার মতো গাছের কাছে, নদীর কাছে দুঃখ জানাতে যাই,
আমার ধানক্ষেত, উদাসী বনভূমি, নদী, সাগর,
মানুষজন,ঘর বাড়ি, দুঃখ কষ্ট,এক ই রকম মনে হয়।
আমি যখন এই দেশে পথে হাঁটি, তুমি তখন ঐ দেশে ,
আলপথে, জলপথে এগিয়ে যাও,
আমাদের আনন্দ বেদনার তফাৎ তো নেই।
বেঁচে থাকার জন্য আমাদের লড়াই, কান্না হাসি,
এক ই ধরনের,আর পাশ দিয়ে বয়ে যায়, প্রতিদিনের জীবন,
আমি মনের জানালা খুলে দিই, দেখি,
পৃথিবী জুড়ে আমার আত্মীয় স্বজন, আমার ঘর বাড়ি,
এক ই চাঁদ সূর্য গ্রহ তারা,এক আকাশের নীচে আমাদের বাসভূমি।
যে কারো কষ্টে আমার বেদনা জাগে,ভাবি, সামনে গিয়ে দাঁড়াই,
চোখের জল মুছিয়ে দিই,বলি, আমি তোমার পাশে আছি।
এই পাখির গান,এই আলো,এই মেঘ বৃষ্টি,
বাউলের গান,সে কথাই তো বলে,
আসুন, ভালোবাসার হাতটা বাড়িয়ে দিই,
বলি, আমি একা নই,
পৃথিবী জুড়ে আমার বন্ধু,
বিশ্ব জুড়ে আছি আমি,
দুনিয়া জুড়ে আজ আমার ঘর বাড়ি।।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY