”অব্যক্ত_যন্ত্রণা”গদ্যকবিতা লিখেছেন ওপার বাংলার কবি – কামনা_দেব । প্রতিভা সন্ধান কাব্য পরিষদ ২০/১১/২০১৮ তারিখের সেরা লেখা ।

267
ওপার বাংলার কবি – কামনা_দেব

অব্যক্ত_যন্ত্রণা

“”””””””””””””””””””””” কামনা_দেব।
অব্যক্ত যন্ত্রণাতে হৃদয় পুড়ে ছাই হয়ে যায়
খুব ঘন ঘন দীর্ঘশ্বাসের পর দীর্ঘশ্বাস পড়ে।
আর এ নিঃশ্বাসটা অতোটাই উত্তপ্ত যে ,
তার উত্তাপে উদ্যাপিত হয়ে
হৃদয়ের সব জল বাষ্পায়িত হয়ে যায়।

হিমেল ঠান্ডায় বারান্দায় দাঁড়িয়ে থাকলেও
শরীর থেকে টপ্ টপ্ করে ঘাম ঝরে পরে!
কখনো কখনো যন্ত্রণার এমন ঝড় বয় বুকে
বুঝাতে পারি না , বলতেও পারি না কাউকে
অসহ্য অব্যক্ত এক ঝড় বয়ে চলে অবিরাম।

হাজার কোলাহলেও নির্বাক থাকে মুখ
লক্ষ হাহাকারে নির্জীব হয়ে থাকে আমার বুক,
সচকিত ভয়ার্ত আতংকের ভূকম্পনে ।
যন্ত্রণার ধ্বংসের স্তূপে তোলপাড় বেড়ে যায়,
কি জানি কি হবে , কি হবে , হায়, হায় !

সীমাহীন যন্ত্রণার ঝড় বেদনার গ্লানিতে
অনিশ্চিত পথচলা জীবনের মাঝদরিয়াতে।
কাউকে না পাওয়ার অব্যক্ত যন্ত্রণা ব্যাকুল হয়ে উঠে
শঙ্কিত হৃদয়ে ভয় জাগে ••
বুকে যন্ত্রণার আগ্নেয়গিরির মতো ফুঁসে উঠে।
জানিনা এর শেষ কোথায় যে হবে।

যন্ত্রণা কতটা যন্ত্রণাদায়ক হয়ে বুকে বিঁধে
পরিত্যক্ত আত্মাই তা শুধু বুঝতে পারে।
কাউকে কাছে না পাবার এ এক ভয়ঙ্কর যন্ত্রণা
তা নিঃশব্দে,নড়বড়ে হৃদয়টাকে তিলে তিলে মারে !
খা খা করা বুকের শ্রাবণধারা চোখ দিয়ে ঝড়ে।

এ জীবনে কখনোই কাছে না পাওয়ার যন্ত্রণা ,
তা বুকেতে দাবানলের মতো ঘসেঘসে জ্বলে।
মরচে ধরা হৃদপিণ্ডটা ধীরে ধীরে ক্ষয়ে চলে –
এভাবেই একদিন শূন্যতায় পৌছে যাবে ,
শুষ্ক চোখের কোলের শুকিয়ে থাকা যন্ত্রণার দাগ
যা সবার আড়ালে শুধুই গড়িয়ে পরে চোখের জলে।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY