পুরুষদের অভিলাষে নারীরা হয় সম্পূর্ণ আর অসম্পূর্ণ!কবি রোজিনা রুমি এর সম্পূর্ণ ভিন্ন মাত্রার লেখা “নারী”

333

   ” নারী “

              রোজিনা রুমি

নারী—–
তোমার হাসিটা একটা ধারালো অস্ত্র
এর শানিত ধারে ক্ষতবিক্ষত হয় বহু তারুন্যের সুখনিদ্রা।
সূর্যের কিরন ম্লান হয় তোমার মুক্তোঝরা হাসিতে,, স্বর্নাভ সুন্দর হাসিতে সৃষ্টি হয় মহাসাগরের ঝম ঝম গর্জন। চাঁদের পেয়ালা উপচে পরে তোমার আপাদমস্তক সৌন্দর্য্যে।
তোমার চাহনীর প্রতিটা পলকে পলকে হয়ে যায় এক একটা কবিতা,,
মহাবিশ্বের বিস্ময়কর চমক
নতজানু হয়ে শব্দের সারি সাজায় প্রেমময়ী অথবা বিদ্রোহী কবিতার ঢঙে।
তোমার মায়ার জালে আচ্ছন্ন পৃথিবীর সমগ্র সুখপঞ্জি,,
জড়ো করো সব সুখ দুঃখ বেদনা, আর মিলিয়ে দাও একই ফ্রেমে।
তোমার প্রতিবাদে সৃষ্টি হয় এক একটি যুদ্ধ,, সব অসম্ভবের গলা চিপে শোধ তোলে আনো মুক্তির।
তোমার কান্নার জলে ভরে যায় মহানন্দা কিংবা তিস্তার বুক।
বোরো আমনের মাঠ সোনালী আভায় পরিপূর্ন।
সুজলা সুফলা শস্য শ্যমলা
হয়ে ফিরে আসে লালসবুজের কপালে।

তুমি লালন করো পৃথিবীকে, তুমি ধারন করো মানব কে,
তুমি ধারন করো সৃষ্টিকে।
তবুও—
তোমার চারনভুমিতে ইতিহাসের আদিপর্বে হায়েনারা নির্দয়তার লুলোপ লালসা ঢেলেছে বারবার।
লজ্জ্বায় ক্রোধে অপমানে সংকোচিত হয়েছে তোমার ধারন করা এক একটা সোনার তরী।
শুধু বহু পুরুষের কামনাগুলো কেন তোমার শুদ্ধতম শরীরে জ্বালাময়ী ক্ষত এঁকে দেয় নগ্নতার রুপ দিয়ে??

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY