পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচিতে বাংলাদেশের রেকর্ড

153
ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা প্রতিনিধি:‌ পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি দিয়ে ভারতের করা রেকর্ড ভাঙলো বাংলাদেশ। সেই রেকর্ড ভেঙে ‘গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে’ নাম লিখিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)।

সোমবার (২৪ সেপ্টেম্বর) গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে ডিএসসিসিকে এ স্বীকৃতির কথা জানিয়েছে। এদিন এ সংক্রান্ত একটি সনদ মেয়র সাঈদ খোকনের হাতে তুলে দেওয়া হয়। ডিএসসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা বিয়ষটি নিশ্চিত করেছেন।

চলতি বছরের ১৩ এপ্রিল চৈত্র সংক্রান্তিতে এক পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচির আয়োজন করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ও রেকিট বেনকিজার। পরিচ্ছন্নতায় বিশ্বরেকর্ড গড়ার লক্ষ্যে ‘ডেটল পরিচ্ছন্ন ঢাকা’ শীর্ষক এ প্রতীকী কর্মসূচি পালন করা হয়।

এতে অংশ নিতে প্রায় ৩০ হাজারের বেশি মানুষ নিবন্ধন করেন। তবে কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন ১৫ হাজার ৩১৩ জন। তবে গিনেস বুক কর্তৃপক্ষ, গণণা করেছে ৭ হাজার ২১ জন। আর বিশ্বরেকর্ড গড়তে দরকার ছিল পাঁচ হাজার ৫৮ জন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ভারতের আহমেদাবাদের একটি শহরে ৫ হাজার ২৬ জনকে নিয়ে এক কিলোমিটার রাস্তা পরিষ্কার করার মাধ্যমে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে জায়গা করে নেওয়ার একটি রেকর্ড রয়েছে। সেই রেকর্ড ভাঙার পাশাপাশি পরিচ্ছন্নতায় জনগণকে সচেতন করতে গত এপ্রিলে এ উদ্যোগ নেয় ডিএনসিসি।

কর্মসূচিতে ডিএসসিসির নিজস্ব পরিচ্ছন্নতাকর্মী, কর্মকর্তা-কর্মচারীর পাশাপাশি বিভিন্ন সেবা সংস্থা, স্কুল-কলেজ, সরকারি-বেসরকারি, আধাসরকারি প্রতিষ্ঠান, সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠন, রাজনৈতিক দলের কর্মীসহ সাধারণ নগরবাসী অংশ নেন।

রেজিস্ট্রেশনের সময় পরিচ্ছন্নতা কাজে অংশ নেওয়ার জন্য সবার হাতে একটি করে ঝাড়ু, মাথায় ক্যাপ ও মুখে মাস্ক দেওয়া হয়। এ সময় একটি বারকোড ও একটি যন্ত্রও দেওয়া হয় তাদের। গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড কর্তৃপক্ষ ড্রোন, স্যাটেলাইট ও লাইভ ভিডিওসহ তাদের নিজস্ব পদ্ধতিতে উপস্থিতি গণনা করে।

সকালে এ পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। কর্মসূচির পাঁচ মাস পর রেকর্ডটির স্বীকৃতি দিয়ে এ সংক্রান্ত একটি সনদ ডিএসসিসির কাছে পৌঁছে দিয়েছে গিনেস বুক কর্তৃপক্ষ।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY