হঠাৎ বুকে ব্যথার কারণে সিটিস্ক্যান করা হলো খালেদা জিয়ার

318
 ঢাকা প্রতিনিধি: হঠাৎ বুকে ব্যথা অনুভব করায় বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সিটিস্ক্যান করা হয়েছে।
বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ৬ তলার কেবিন ব্লকের নিচ তলায় খালেদা জিয়ার সিটিস্ক্যান করা হয়। বিএসএমএমইউয়ের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুন সাংবাদিকদের জানান, সিটিস্ক্যানের রেজাল্ট দেখে তারা খালেদা জিয়ার পরবর্তী  চিকিৎসার সিদ্ধান্ত নিবেন।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, বেগম খালেদা জিয়া মঙ্গলবার রাত থেকে হঠাৎ বুকের ব্যথায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। দ্রুত ডাক্তার কল দেয়া হয়। পরে গতকাল তাকে সিটিস্ক্যান করার পর বিকাল পৌনে তিনটায় দিকে তাকে আবারও হুইল চেয়ারে করে কেবিন ব্লকের ৬১২ নম্বর রুমে নিয়ে যাওয়া হয়।
এই প্রসঙ্গে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুন বলেন, আমাদের এখানে প্রতিদিন ডাক্তারা টাইম টু টাইম তাকে দেখতে যান। খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল আছে। ভর্তির পর এখন পর্যন্ত তার অবস্থার কোনো অবনতি হয়নি। আশা করছি তিনি অল্প সময়ের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠবেন।
এ দিকে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) ড্যাবের মহাসচিব ড. এ জেড এম জাহিদ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, সিটিস্ক্যানের দায়িত্বে থাকা ড. নজরুল ইসলামকে বের করে দিয়ে, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের পছন্দ অনুযায়ী চিকিৎসক দিয়ে তারা সিটিস্ক্যান করিয়েছে। বেগম জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে যে কঠোর গোপনীয়তা করা হচ্ছে, তাতে রোগীর আত্মীয়দের দেখা করা কিংবা কারও দেখা করা সম্ভব হচ্ছে না। বিশেষ করে রোগীর মানসিক উন্নতির জন্য তার শুভাকাংখীদের সাক্ষাৎ প্রয়োজন। তাকে উৎসাহ দেওয়া প্রয়োজন।
তিনি আরও বলেন, নাজিমুদ্দিন রোডেও ছিল আইজোলেশন এখন এখানে ছোট ঘরে আইজোলেশন তাতে রোগী কত দিন সময় লাগবে সুস্থ হতে আল্লাহই জানেন। তবে আমারা খালেদা জিয়াকে হুইল চেয়ারে করে না হেটে আসতে দেখতে চাই।
উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড প্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আদালতের নির্দেশে গত ৬ অক্টোবর বিকালে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরাতন কারাগার থেকে এনে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY