গোপালগঞ্জে বাস-মাহেন্দ্র সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২

242

 গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জে বাস-মাহেন্দ্র সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২জন হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের সদর উপজেলার হরিদাসপুর নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার ও পুলিশ সুপার মুহাম্মদ সাইদুর রহমান খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

নিহতের মধ্যে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার সুলতানশাহী গ্রামের আল আমীনের মেয়ে মরিয়ম (৮), ছেলে নয়ন শেখ (১১), আলআমীনের শাশুড়ি রেনু রেগম (৪৫) শালিকা মেঘলা (৯), মাহেন্দ্র চালক একই উপজেলার সুকতাইল গ্রামের রাজিব মোল্লা (২০), হরিদাসপুর গ্রামের আক্কাস মোল্লার ছেলে সাদ্দাম মোল্লা (২৫), একই উপজেলার ডুমদিয়া গ্রামের ঝিলু গাজীর মোর্শেদ গাজী (৪০), তেবাড়িয়া গ্রামের কাশেম শেখের ছেলে জানে আলম শেখ (৩৭), চন্দ্রদিঘলিয়া গ্রামের ছলেমান সিকদারের ছেলে জগলু সিকদারের (৩৫) নাম জানা গেছে। অন্য ২ জনের নাম পরিচয় এখনো জানা যায়নি। তারা পড়ে মারা যান। এ দুর্ঘটনায় বাস, মাহেন্দ্র যাত্রী ও পথচারী নিহত হয়েছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শী মুন্সি মোহাম্মদ কালু মেম্বর জানিয়েছেন।

গোপালগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম জানান, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা গোপালগঞ্জ গামী গোল্ডেন লাইনের একটি যাত্রীবাহী বাসের সাথে মাহেন্দ্রের (থ্রি-হুইলারের) সংঘর্ষ হয়। এতে মাহেন্দ্রটি বাসের নিচে চলে যায়। দুমড়ে মুচড়ে মাহেন্দ্র ও বাস রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই একই পরিবারের ৪ জনসহ ৯ জন মারা যান। পরে আরো ৩জন মারা যান। পুলিশ, গোপালগঞ্জ ও ফরিদপুরের ফায়ার সার্ভিস কর্মী এবং স্থানীয়রা উদ্ধার কাজ পরিচালনা করে। আহত ২০ জনকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপতালে ভর্তি করা হয়েছে।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY