বাড়ির মালিকদের দুদক চেয়ারম্যানের হুঁশিয়ারি

218

দৈনিক আলাপ ওয়েবডেস্কঃ যারা চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে অমানবিক আচরণ করছেন এমন বাড়িওয়ালাদের সাবধান হতে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘অমানবিক আচরণকারী চিকিৎসকরা সাবধান। যারা চিকিৎসাখাতে কাজ করা ভাড়াটিয়াদের নিগৃহীত করছেন, বের করে দিতে চাইছেন তাদের সম্পদের অনুসন্ধান করবে দুদক।’ বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘আমাদের কাছে বেশ কিছু অভিযোগ এসেছে, বিভিন্ন জায়গায় চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বাসা থেকে বের করে দেওয়া হচ্ছে। কোথাও আবার বাসা থেকে বের হওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করছেন। আমরা যদি সুনির্দিষ্টভাবে অভিযোগ পাই তাহলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবো।কী ধরণের ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে জানতে চাইলে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘অভিযুক্ত বাড়িওয়ালাদের বিরুদ্ধে দুদকের সব ধরণের আইনের প্রয়োগ করা হবে। কোনোভাবেই এই মুহূর্তে আমাদের স্বাস্থ্যকর্মীদের বিরুদ্ধে কোনো ধরণের অন্যায় বরদাস্ত করা হবে না।’ দুর্নীতি দমনে নিয়োজিত রাষ্ট্রীয় সংস্থার প্রধান বলেন, ‘কেউ যদি মনে করে আজকের দিনই শেষদিন, না আজকের দিন শেষদিন নয়, সামনে আরও দিন আছে। আমরা নোট রাখছি। তিনি (বাড়িওয়ালা) যে সম্পত্তি তৈরি করলেন, কীভাবে বাড়ি তৈরি করলেন, আমরা তার সম্পত্তির হিসাব চাইতে পারি। আমাদের সবারই উচিত ডাক্তার সম্প্রদায় বা যারা রাষ্ট্রীয় চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত তাদের সবাইকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা।’

করোনা আক্রান্ত হওয়ায় এরই মধ্যে বিভিন্ন এলাকায় চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে বিভিন্ন বাড়ির মালিকদের রুঢ় আচরণের বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে। হাসপাতালে চাকরি করায় ভাড়াটিয়াকে বাড়িতে ঢুকতে না দেওয়া বা বাড়ি ছাড়তে চাপ সৃষ্টির অভিযোগ আছে। ময়মনসিংহে কোভিড-১৯ পজেটিভ এক নারী চিকিৎসককে এলাকা থেকে বের করে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। যা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন মহলে সমালোচনার সৃষ্টি করেছে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বৃহস্পতিবার সকালে নয়টি জেলার মাঠ প্রশাসনের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে মতবিনিময়কালে বিষয়টিকে অমানবিক বলে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি বলেন, ‘মানুষ আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে অনেক সময় অমানুষে পরিণত হয়। কীভাবে একজন মানুষকে বের করে দিবেন। বা একজন ডাক্তার সে যদি অসুস্থ হলো তাকেও এলাকা থেকে বের করে দিতে হবে? এই ধরনের ঘটনা কেন বাংলাদেশে ঘটবে। বাংলাদেশের মানুষকে তো এত অমানবিক হওয়ার কথা না।’

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY