সাতক্ষীরায় তালাকপ্রাপ্ত স্বামীর ছোঁড়া এসিডে দগ্ধ স্ত্রী ও কন্যা

39
প্রতীকী ছবি

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলায় তালাকপ্রাপ্ত স্বামীর ছোড়া এসিডে স্ত্রী ও কন্যা গুরুতর আহত হয়েছেন।

সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নে এই ঘটনা ঘটে।

আহত স্ত্রী উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের চাপড়া গ্রামের একরামুল কাদিরের মেয়ে ফাতেমা সুলতানা (২৯) ও ফাতেমার মেয়ে জাকিয়া (২)। ঘাতক- ফাতেমার তালাকপ্রাপ্ত স্বামী শাহজান মোড়ল নড়াইলের পঙ্কবিলা গ্রামের শওকত আলী মোড়লের মাদকাসক্ত ছেলে।

আক্রান্ত ফাতেমা জানান, তারা স্বামী মাদকাসক্ত ও নির্যাতনকারী হওয়ায় তাদের এক বছর আগে তালাক হয়। এরপর থেকে বাবার বাড়িতে থাকতেন তিনি। সোমবার রাতে বাবার বাড়িতে অবস্থানকালে তার স্বামী বাড়ির জানালার কাছে এসে ডাকে এবং সাথে সাথেই এসিড ছুড়ে মারে। এতে মারাত্বক আহত হন তিনি ও তার মেয়ে।

মেয়ের চাচা সোহাগ হোসেন জানান, ফাতেমার চিৎকার শুনে ফাতেমার স্বামীকে ধরতে ধাওয়া করলেও তারা ব্যর্থ হন।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের ডা. ইকবাল মাহমুদ জানান, মেয়ের থেকেও মায়ের (ফাতেমা) অবস্থা খারাপ। তার মুখ, চোখ ও বুক থেকে পেটসহ শরীর বিভিন্ন অংশ এসিডে পুড়ে গেছে। জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসা চলছে।

আশাশুনি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাসানুজ্জামান বলেন, সোমবার রাতে ফাতেমা ও তার মেয়ের ওপর ফাতেমার তালাক প্রাপ্ত স্বামী এসিড ছোড়ে। এতে তারা মারাত্বক আহত হন তারা। এখবর পেয়ে আশাশুনি থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। আহতদের উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসাপাতালে পাঠান হয়েছে।

আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুস সালাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি। মামলা হলে প্রয়োজনীয় ব‌্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY