১৩ মামলার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

38

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৩ মামলার আসামি নিহত হয়েছেন। উপজেলার সুরাবই গ্রামে মঙ্গলবার ভোররাতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত আসামি কুদরত আলী সদর উপজেলার দড়িয়াপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি ওমর আলীর ছেলে। কুদরত আন্তবিভাগ ডাকাত সর্দার ছিলেন এবং তার বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় ১৩টি ডাকাতির মামলা রয়েছে বলে পুলিশ দাবি করেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সুরাবই গ্রামের ফজলু মিয়ার বাঁশ বাগানে মঙ্গলবার ভোররাতে একদল ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন খবরের ভিত্তিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা সেখানে অভিযান চালায়। তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতরা হামলা করে। পরে ডাকাতরা এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে থাকে। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায় এবং ডাকাতরা দিশেহারা হয়ে পালিয়ে যায়।

পরে ঘটনাস্থল থেকে একজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে নিহতের নাম কুদরত আলী বলে নিশ্চিত হয় পুলিশ।

ঘটনাস্থল থেকে দেশি পাইপগান, ছয় রাউন্ড গুলি, দুটি রামদা, রডসহ ডাকাতির কাজে ব্যবহারের সরঞ্জমাদি উদ্ধার করা হয়। অভিযানকালে ডাকাত দলের হামলায় ডিবির এসআই আবুল কালাম আজাদ, এসআই মোজাম্মেল হক, কনস্টেবল জয়নাল আবেদিন, নূরুল ইসলাম, রনি কর ও রিপন আহত হন। হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY