গুলিস্তান থেকে টাকা তোলেন, কাল সংসদ সদস্যও হতে পারেন: সিইসি

64
গুলিস্তান থেকে টাকা তোলেন, কাল সংসদ সদস্যও হতে পারেন সিইসি

দৈনিক আলাপ ওয়েবডেস্ক:‌ গুলিস্তান মহল্লায় হকারদের কাছ থেকে কেউ টাকা নেন। কিছুদিন পর হয়তো তাকে নেতা হতেও দেখা যায়। এই ব্যক্তি একদিন সংসদ সদস্য হতে পারেন। এই ব্যাকগ্রাউন্ড নিয়ে ইসিকে কাজ করতে হয়। বললেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা।

আজ রোববার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের যোগদান উপলক্ষে কর্মশালার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। এসময় ইসি সচিব মো. আলমগীর, নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম, শাহাদাত হোসেন চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।বিশ্বের অন্যান্য দেশের নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশনের তুলনা করে সিইসি বলেন, লন্ডনে কেউ ছয় মাস থাকলে নির্বাচনের আগে তাদের নিবন্ধন দিয়ে দেয়। ভুয়া ভোটার নেই বলেই তারা ধরে নেয়। আর আমাদের দেশে নির্বাচন কমিশনকে মলম পার্টি, পকেটমার, ব্যাগটানা পার্টি ও ক্যাসিনো মেম্বার নিয়ে কাজ করতে হয়।তিনি বলেন, অনেক পলিটিক্যাল পার্টি যুক্তরাষ্ট্র, সুইজারল্যান্ড, জার্মানির উদাহরণ টানেন। সেদিন একটা পলিটিক্যাল পার্টি এসে এ কথা বলেছিল। আমি অত্যন্ত নিচু গলায় বললাম কানে কানে বললাম, আগে সুইজারল্যান্ড হতে হবে, তারপর। ইউ মাস্ট থিংক গ্লোবালি, বাট অ্যাক্ট লোকালি। তবে সেটি পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে।সিইসি বলেন, ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে অনেক কথা বলা হয়। সুইজারল্যান্ডেও কাগজের ব্যালটে ভোট হয়। কিন্তু সেখানে যুদ্ধের মতো বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করতে হয় না। পোস্টারে আকাশ ঢেকে যায় না, বাতাস বন্ধ হয়ে আসে না।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY