পরীমনির ভক্তদের জন্য সুসংবাদ 

97
ফাইল ছবি

দৈনিক আলাপ বিনোদন ডেস্ক:  ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়িকা পরীমনির ভক্তদের জন্য সুসংবাদ। পরীমনি ও রাজ অভিনীত সিনেমা ‘গুণিন’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড থেকে ২০ ফেব্রুয়ারি ছাড়পত্র পেয়েছে গিয়াস উদ্দিন সেলিম পরিচালিত সিনেমাটি। 

‘গুণিন’ সিনেমার প্রধান দুই চরিত্রে দেখা যাবে শরিফুল রাজ ও পরীমনিকে। তারা সিনেমার গল্পে রাবেয়া-রমিজ। এ সিনেমার শুটিং করতে গিয়েই পরিচয়, প্রণয়; এর পর বন্ধন হয় আলোচিত এ জুটির। 

সিনেমার রাবেয়া-রমিজ এখন বাস্তবে বেঁধেছেন সংসার। তবে সিনেমায় তাদের পরিণতি কী হয়? সিনেমায়ও কি তারা বাঁধতে পারবেন এমন সুখের সংসার? এমন প্রশ্নের উত্তর পেতে হলে গিয়ে দেখতে হবে পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা ‘গুণিন’।

‘গুণিন’ সিনেমার নামভূমিকায় অভিনয় করেছেন আজাদ আবুল কালাম। সেই সঙ্গে দিলারা জামান, ইরেশ যাকের, মোস্তফা মন্ওয়ার, শিল্পী সরকার অপু, ঝুনা চৌধুরীসহ আরও অনেককেই দেখা যাবে এ সিনেমায়।

ছবির পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিম বলেন, ‘গুণিন’ সেন্সর সার্টিফিকেট পেয়েছে। সেন্সর বোর্ডের দুই-একজন আমাকে জানিয়েছেন যে, সিনেমাটা তাদের খুব ভালো লেগেছে। খুব তাড়াতাড়ি ‘গুণিন’ সিনেমা হলে মুক্তি পাবে। হলে চলার পর সিনেমাটি আবার চরকির পর্দায় দর্শক দেখতে পারবেন। আমার ধারণা, দর্শক সিনেমাটি উপভোগ করবেন। সিনেমায় যারা অভিনয় করেছেন, প্রত্যেকে চমৎকার পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন। আমি পরিচালক হিসেবে সবার কাজে খুবই খুশি। দর্শক সিনেমা দেখলেই বুঝতে পারবেন যে সবাই খুব নিবেদিতপ্রাণ ছিলেন।

পরিচালক আরও বলেন, ‘গুণিন’ সিনেমার গল্প হাসান আজিজুল হক স্যারের ছোটগল্প থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নেওয়া। আমার শিক্ষাজীবনেরও গুরু তিনি। ছোটগল্পকে সিনেমায় রূপ দেওয়া খুব চ্যালেঞ্জিং। কিন্তু সাহস নিয়ে কাজটি করেছি। হাসান স্যারের লেখা মানেই তো জীবনভিত্তিক। সেই সঙ্গে প্রথম থেকেই পাশে ছিল চরকি। কাজটি করতে গিয়ে ভীষণ উপভোগ করেছি।

এ বিষয়ে চরকির প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা রেদওয়ান রনি বলেন, ২০ ফেব্রুয়ারি ‘গুণিন’ সেন্সর সার্টিফিকেট পেয়েছে। এই প্রথম চরকি প্রযোজিত কোনো সিনেমা প্রথমেই প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে। আমাদের জন্য এটা নতুন অভিজ্ঞতা।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here