যৌন কেলেঙ্কারি পদত্যাগে বাধ্য হলেন ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

263
পদত্যাগ করলেন ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:   যৌন কেলেঙ্কারির অভিযোগে পদত্যাগ করেছেন ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর। এক সংবাদ সম্মেলনে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ ভুয়া ও ভিত্তিহীন উল্লেখ করলেও বুধবার ঠিকই নিজের পদ থেকে ইস্তফা দিলেন আকবর।

পদত্যাগের ঘোষণা দেয়ার সময় নিজের করা মানহানির মামলার উল্লেখ করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। তার বিবৃতিতে মন্ত্রী বলেন, যেহেতু আমি আদালতের মাধ্যমে ন্যায় বিচার পাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তাই আমি মনে করি এই পদ থেকে আমার সরে দাঁড়ানো উচিত। একইসঙ্গে আমার বিরুদ্ধে আনা মিথ্যা অভিযোগ ব্যক্তিগতভাবেই মোকাবেলা করা উচিত বলে আমি মনে করি।

মন্ত্রী তার বিবৃতিতে আরও বলেন, এজন্য আমি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ আমাকে দেশ সেবার করার যে সুযোগ দিয়েছেন তার জন্য আমি তাদের প্রতি খুবই কৃতজ্ঞ।

এর আগে রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে আকবর বলেন, কাজের কারণে দেশের বাইরে থাকায় আমি এর আগে এ নিয়ে জবাব দিতে পারিনি। আমার বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ ভুয়া ও ভিত্তিহীন।

ওই সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করে বলেন, লোকসভা নির্বাচনের কয়েক মাস আগে এই ঝড় উঠল কেন? এটা আপনারাই (সাংবাদিক) বুঝে নিন। এই মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও বানানো অভিযোগগুলো আমার ভাবমূর্তি ও মর্যাদা ক্ষুণ্ণ করেছে।

বলিউডে #মিটু আন্দোলন শুরু হওয়ার পর সেটির ঢেউ ভারতের ক্রিকেট এবং রাজনীতির ময়দানে গিয়েও লাগে। এরই ধারাবাহিকতায় আকবরের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনেন অন্তত ২০ জন নারী। তাদের মধ্যে অধিকাংশই আবার নারী সাংবাদিক। তাদের অভিযোগ পত্রিকার সম্পাদক থাকাকালে আকবর তাদের যৌন হেনস্থা করেছেন।

এরইমধ্যে আকবর সম্পাদিত এশিয়ান এজ পত্রিকার সাবেক সহকর্মী সাংবাদিক প্রিয়া রামানির বিরুদ্ধে মানহানির মামলাও করেছেন বর্ষীয়ান এই রাজনীতিক। আর পদত্যাগের বিবৃতিতে ওই মামলার দিকেই ইঙ্গিত করেছেন আকবর।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY