২৪ ঘণ্টায় সারবে করোনাভাইরাস সংক্রমণ! দাবি করলেন ভারতীয় ডাক্তার

185
২৪-ঘণ্টায়-সারবে-করোনাভাইরাস-সংক্রমণ-দাবি-করলেন-ভারতীয়-ডাক্তার
ছবি: সংগৃহীত।

দৈনিক আলাপ ওয়েবডেস্ক:‌ প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ওষুধ আবিষ্কার করেছেন বলে দাবি করেছেন ভারতের এক চিকিৎসক। শুধু দাবিই নয়; তার বানানো ওষুধ খেলে মাত্র ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের দেহে ভাইরাসটি অকার্যকর হবে ও রোগমুক্তি মিলবে বলে জানান এই চিকিৎসক।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টাইমস জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক আবিস্কারের এই দাবি করেছেন তামিলনাড়ুর চিকিৎসক ডা. থানিকাসালাম বেনি। তিনি আয়ুর্বেদ ও সিদ্ধ ওষুধ ব্যবহার করে চিকিৎসা দিয়ে থাকেন।

ডা. থানিকাসালামের দাবি, বিভিন্ন ধরনের গাছ-গাছড়ার নির্যাস থেকে তিনি যে ওষুধ তৈরি করেছেন, তা দিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীকে সাড়াতে সক্ষম।

বার্তাসংস্থা এএনআই’কে ওই চিকিৎসক বলেন, ‘আমরা বিভিন্ন ঔষধি গাছের নির্যাস থেকে ওষুধ প্রস্তুত করেছি। এটি জ্বর-জাতীয় যেকোনও রোগ সারাতে খুবই কার্যকর। করোনাভাইরাসের কোনো ওষুধ নেই। এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা এখনো সফল হতে পারেনি। কিন্তু আমাদের আয়ুর্বেদিক ওষুধ দিয়ে ডেঙ্গু, মাল্টি-অর্গান ফেভার ও অ্যাকিউট লিভার ফেবারের চিকিৎসা করা যায়।’

এর পর ডা. থানিকাসালাম বেনি বলেন, ‘আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও চীন সরকারকে বলতে চাই, আমাদের ওষুধ করোনাভাইরাসজনিত জ্বরের চিকিৎসাতেও কার্যকর।’ তিনি আরও দাবি করেন, এই ওষুধ প্রয়োগে করোনাভাইরাসের সংক্রামণ মাত্র ২৪ থেকে ৪০ ঘণ্টার মধ্যেই সারানো সম্ভব।

এর পেছনের যুক্তি হিসেবে তিনি বলেন, এই ওষুধে এর আগে ডেঙ্গুতে প্লাটিলেট কমে যাওয়া, যকৃতের সমস্যা, রক্তের শ্বেত কণিকা ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়ার চিকিৎসার ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়েছে এবং তারা এই সময়েই সেরে উঠেছেন।

ডা. থানিকাসালাম বলেন, ‘আমি অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসী যে, আমাদের ওষুধ করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় কার্যকরী হবে।’ ডা. থানিকাসালামের এমন দাবি কতটা যৌক্তিক বা আসলেই কি তার আবিষ্কৃত আয়ুর্বেদিক ওষুধ করোনাভাইরাস সংক্রামণ সারাতে পারবে কিনা সে বিষয়ে অন্য কোনো ভাইরোলজিস্ট নিশ্চিত করতে পারেননি।

প্রসঙ্গত করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ২১৩ জন, আক্রান্ত সাড়ে নয় হাজারেরও বেশি। বিশ্বব্যাপী দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে ভাইরাসটি। এক মাসেরও কম সময়ে ভাইরাসটি কমপক্ষে ১৯টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। যে কারণে এর প্রতিষেধক আবিষ্কারে আদাজল খেয়ে নেমেছেন বিভিন্ন দেশের চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা।

এখনপর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ান বিজ্ঞানীরা এ ক্ষেত্রে কিছুটা সাফল্য দেখিয়েছেন। তবে ওষুধটি বাজারে ছাড়তে অন্তত বছরখানেক লেগে যাবে বলে জানায় বিজ্ঞানীরা। আর এমন সব বিজ্ঞানীদের আঙুল দেখিয়ে করোনাভাইরাস নির্মূলের ওষুধ আবিস্কারের দাবি করল এই ভারতীয় চিকিৎসক।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY