চীনে ইঁদুরের ওপর করোনাভাইরাসের টিকা প্রয়োগ শুরু

381
চীনে ইঁদুরের ওপর করোনাভাইরাসের টিকা প্রয়োগ শুরু
ছবি: সংগৃহীত

দৈনিক আলাপ ওয়েবডেস্ক:‌ চীনে নভেল করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর দেশটির বিভিন্ন ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি এবং অন্যান্য প্রতিষ্ঠান, এটি রোধে টিকা আবিষ্কারে কাজ করে যাচ্ছে। সম্প্রতি সাংহাইয়ের একটি কোম্পানি নতুন একটি টিকা আবিষ্কার করেছে, যা ইঁদুরের ওপর প্রয়োগ শুরু হয়েছে।

কোনও টিকা মানুষের ওপর প্রয়োগের আগে সেটি প্রাণীর ওপর পরীক্ষা চালানো হয়। এ লক্ষ্যে সাংহাইয়ের তোংজি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা রবিবার থেকে স্বাস্থ্যবান ইঁদুরে ওপর সবশেষ করোনাভাইরাসের টিকা প্রয়োগ শুরু করেছে।

তোংজি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের অধীনে সাংহাই ইস্ট হসপিটালের প্রেসিডেন্ট লিউ ঝংমিন চীনের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যম সিজিটিএনকে বলেন, সম্ভাব্য টিকার জন্য ইঁদুরের ওপর এই পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

প্রাথমিক ধাপ পার করার পর টিকার একটি সেটি বিষাক্ত কিনা তা পরীক্ষা করা হবে। আর এজন্য প্রয়োজন হবে বানরের। এভাবে আমরা টিকাটি প্রয়োগের আগে সেটি নিরাপদ কিনা তা পরীক্ষা করবো।

প্রেসিডেন্ট লিউ বলেন, টিকার প্রাথমিক পরীক্ষার জন্য ১০০-র বেশি ইঁদুর লাগবে। এদিকে এই টিকাটি দিয়ে চীনের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ এবং বেইজিংয়ে জাতীয় খাদ্য ও ওষুধ নিয়ন্ত্রণ ইন্সটিটিউটেও পরীক্ষা চালানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, এ ধরনের এমআরএনএ-ভিত্তিক টিকা একটি অত্যন্ত উন্নত এবং অনন্য ভ্যাকসিন উৎপাদন প্রযুক্তি এবং এটা উৎপাদনে অল্প সময় লাগে কিন্তু কার্যকারিতা অনেক।

চীন সিডিসি, তোংজি বিশ্ববিদ্যালয় ও সাংহাইয়ের একটি কোম্পানি এই টিকাটি কো-ডিজাইন ও ডেভেলপ করেছে। জানুয়ারি মাসের শেষদিকে চীনের সিডিসি থেকে অ্যান্টিজেন পাওয়ার পর পরবর্তী দুই সপ্তাহে এই এমআরএনএ টিকার নমুনা তৈরি করেন ডা. লি হ্যাংওয়েন ও তার টিম।

স্টেমিরনা থেরাপিউটিকস এলএলসি’র সিইও ডা. লি হ্যাংওয়েন সিজিটিএনকে বলেন, প্রাণীর ওপর টিকার নমুনার পরীক্ষা চালানোর জন্য আমরা ৯ থেকে ১২ ধরনের অ্যান্টিজেন তৈরি করেছি।

তিনি বলেন, একটি টিকাকে ক্লিনিক্যাল টেস্টিংয়ের তিনটি ধাপ পার করতে হয়। পরীক্ষার সময় ও রোগীর ওপর ভিত্তি করে এটি কয়েক মাস থেকে কয়েক বছর পর্যন্ত চলতে পারে। তবে নতুন এই টিকা ইঁদুরের ওপর সফল হলে এপ্রিলে আরও ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু করতে পারবেন।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY