নির্ভয়া ধর্ষণ ও হত্যা: চার আসামির ফাঁসি কার্যকর

19
নির্ভয়া ধর্ষণ ও হত্যা চার আসামির ফাঁসি কার্যকর
এই চার আসামির ফাঁসি কার্যকর করা হয়। ছবি: সংগৃহীত

দৈনিক আলাপ ওয়েবডেস্ক:‌ দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর নির্ভয়া হত্যাকারী চারজনকে ফাঁসির দড়িতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টায় দিল্লির তিহার জেলে তাদের ফাঁসি দেওয়া হয়।

যাদের ফাঁসি দেওয়া হয়েছে তারা হলেন- অক্ষয় ঠাকুর (৩১), পবন গুপ্তা (২৫), বিনয় শর্মা (২৬) ও মুকেশ সিং।

তিহার জেলের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ফাঁসির আগের রাতে নির্ভয়া মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ওই চার আসামি খেতে চায়নি। তারা সারা রাত জেগে ছিল।

জেল সূত্রে খবর, এশিয়ার বৃহত্তম এই কারাগারের কোনও বন্দি এদিন চোখের পলকের জন্যেও ঘুমাতে পারেনি। সবাই যেন প্রহর গুনছিল নির্ভয়া কাণ্ডের আসামিদের ফাঁসি কার্যকর হওয়ার জন্যে।

মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ার পর সাংবাদিকদের নির্ভয়ার মা বলেন, আমরা ভারতের মেয়েদের সুবিচার পাওয়ার জন্যে আমাদের লড়াই চালিয়ে যাবো। তবে ন্যায়বিচার পাওয়ার জন্যে আমাদের এই দীর্ঘদিনের অপেক্ষা খুব কষ্টের ছিল। একসময় এই অপেক্ষা মানসিক যন্ত্রণা হয়ে উঠেছিল আমাদের কাছে। তবে শেষ পর্যন্ত আমরা ন্যায়বিচার পেয়েছি।

জানা গেছে, ফাঁসি কার্যকর হওয়ার পর আশা দেবী জড়িয়ে ধরেছিলেন নির্ভয়া নামে পরিচিত তার মেয়ের ছবিকে।

সবকিছুর পরেও শেষপর্যন্ত যেভাবে চার দোষীকে ফাঁসিতে ঝোলালেন জল্লাদ পবন তাতে হাসি ফিরেছে নির্ভয়ার পরিবারের মুখে।

২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে দিল্লির ২৩ বছর বয়সী এক মেডিকেল ছাত্রীকে গণধর্ষণ করে রাজপথে ছুঁড়ে ফেলে দেয় ছয় দুষ্কৃতি।

ওই ঘটনায় অভিযুক্ত ছয়জনের মধ্যে একজন নাবালক বলে সংশোধনাগার থেকে তিন বছর পরে ছাড়া পেয়ে যায়। আরেক অভিযুক্ত রাম সিং জেলের মধ্যেই আত্মহত্যা করে। বাকি চার আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেয় আদালত। খবর: এনডিটিভি

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY