দক্ষিণ চীনে বন্যা ও ভূমিধস, নিহত অন্তত ১৮

245
দক্ষিণ চীনে বন্যা ও ভূমিধস
দক্ষিণ চীনে বন্যা ও ভূমিধস। ছবি: দ্যা গার্ডিয়ান

দৈনিক আলাপ ওয়েবডেস্ক:‌ চীনের দক্ষিণাঞ্চলে বন্যা ও ভূমিধসে অন্তত ১৮ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এছাড়াও গৃহহীন হয়ে পড়েছে কয়েক হাজার মানুষ।

বৃহস্পতিবার দেশটির সরকারি সংবাদ মাধ্যম এ কথা জানিয়েছে। করোনা মহামারিকালে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত এ অঞ্চলের জনপ্রিয় পর্যটন এলাকাগুলো এই খারাপ আবহাওয়ার কারণে ভয়াবহ বিপর্যয়ের মুখে পড়ে।

জরুরি ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়ার খবরে বলা হয়েছে, প্রবল বৃষ্টির কারণে বন্যা ও ভূমিধসে প্রায় ২ লাখ ৩০ হাজার লোককে অন্যত্র সরিয়ে নিতে হয়েছে। এছাড়া ১৩শ’রও বেশি বাড়ি-ঘর ধ্বংস হয়েছে।

সিনহুয়া আরো জানায়, দক্ষিণাঞ্চলীয় গুয়াংজি ঝুয়াং স্বায়ত্তশাসিত এলাকায় ছয় জনের প্রাণহানি ও একজন নিখোঁজ হয়েছে। জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্র ইয়াংশুর রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে গেছে। ওই এলাকার বাসিন্দা ও পর্যটকদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

স্থানীয় সরকার বলছে, এক হাজারেরও বেশি হোটেল বন্যায় প্লাবিত এবং ৩০টিরও বেশি পর্যটন এলাকা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

জরুরি ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় বলছে, বন্যায় সরাসরি অর্থনৈতিক ক্ষতি ৫৫ কোটি মার্কিন ডলারেরও বেশি।

এদিকে হুনান প্রদেশে বৃষ্টি জনিত বৈরি আবহাওয়ার কারণে অন্তত ১৩ জন প্রাণ হারিয়েছে। এছাড়া দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলীয় গুইঝু প্রদেশে আরো আট জন নিখোঁজ রয়েছেন অথবা প্রাণ হারিয়েছেন।

সিনহুয়া বলছে, জুনের প্রথম থেকে প্রবল বৃষ্টিপাত শুরু হয়। এ কারণে ১শ’ ১০টি নদীর পানির স্তর বিপদজনকভাবে বৃদ্ধি পায়। আগামী কয়েকদিনও দক্ষিণ চীনে ঝড়বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY