শরণার্থী আফগান বধূ, প্রসব যন্ত্রণা আমেরিকার বিমানে, সন্তান-জন্ম জার্মানির বিমানবন্দরে

119

দৈনিক আলাপ আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আকাশেই তীব্র প্রসবযন্ত্রণা। আফগান মহিলা মা হলেন আমেরিকার বায়ুসেনার বিমান জার্মানির মাটি ছোঁয়ার পরপরই। শনিবার।

আমেরিকার বিমানবাহিনীর তরফে রবিবার টুইট করে এ খবর দেওয়া হয়েছে। জানানো হয়েছে, আফগান মহিলার প্রসবযন্ত্রণা শুরু হয়েছিল বায়ুসেনার বিমান ওড়ার পরই। বিমান তখন ২৮ হাজার ফুট উচ্চতায়। বিমানের ভিতরে বায়ুচাপ কম থাকায় তীব্র শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল আসন্নপ্রসবার। তাঁর দম যেন বন্ধ হয়ে আসছিল। তা দেখে বিমানের উচ্চতা খুব দ্রুত কমিয়ে আনেন আমেরিকার বিমানবাহিনীর পাইলট। যাতে বিমানের ভিতরে বায়ুচাপের পরিমাণ বাড়ে। তখনও গন্তব্য জার্মানিতে আমেরিকার বায়ুসেনা ঘাঁটি থেকে কিছুটা দূরেই ছিল সি-১৭ বিমানটি। দ্রুত আকাশ-পথ পেরিয়ে আমেরিকার বায়ুসেনার বিমানটি জার্মানির র‌্যামস্টিন এয়ারবেসে নামার প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই সন্তান প্রসব করেন ওই আফগান মহিলা। প্রসবে সাহায্য করেন আমেরিকার বিমানবাহিনীর জওয়ানরাই। মা ও শিশুকে পরে নিয়ে যাওয়া হয় র‌্যামস্টিন এয়ারবেসের কাছাকাছি একটি হাসপাতালে।



আমেরিকার বায়ুসেনার তরফে টুইটে জানানো হয়েছে, মা ও শিশু দু’জনেই সুস্থ। ওই মহিলার মতো আর যাঁরা কাবুল ছেড়ে অন্যত্র পালাতে চাইছেন, তাঁদের কয়েক জনকে নিয়ে শুক্রবার আমেরিকার বিমানবাহিনীর এয়ার মোবিলিটি কমান্ডের সি-১৭ বিমানটি কাবুল থেকে আকাশে ওড়ে পশ্চিম এশিয়ার উদ্দেশ্যে। সেখানেও কাবুল থেকে আসা কয়েকজনকে নামানোর কথা ছিল। তার পর সেখান থেকে জার্মানিতে আমেরিকার র‌্যামস্টিন এয়ারবেসে যাওয়ার জন্য আকাশে ওড়ে বিমানটি। সেই বিমানেই ছিলেন ওই শরণার্থী আফগান বধূ।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here