কুমারখালী পৌর মেয়রসহ ৭ কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ত্রাণ বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ

120

দৈনিক আলাপ ওয়েবডেস্কঃ কুষ্টিয়ার কুমারখালী পৌরসভার মেয়রসহ সাতজন কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে সরকারি ত্রাণ বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হলে স্ব-প্রণোদিত হয়ে অভিযোগটি আদালত আমলে গ্রহণ করেছে। অভিযুক্ত মেয়রসহ সাত কাউন্সিলরের অনিয়ম সংক্রান্ত বিষয়ে তদন্তপূর্বক আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ওসিকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালতের বিচারক এ আদেশ দেন।

আদালত সূত্র জানায়, চলমান বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের ক্ষতিগ্রস্ত গরীব, অসহায় ও দুস্থ হতদরিদ্র ব্যক্তিদের মাঝে সহায়তা হিসাবে সরকারি ত্রাণ প্রতি প্যাকেটে ১০ কেজি চাল, তিন কেজি করে ডাল ও আলু এবং একটি সাবান বিতরণে অনিয়মের অভিযোগের বিষয়টি স্থানীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। তা আদালতের দৃষ্টিগোচর হয় এবং পরবর্তীতে আদালত স্ব-প্রণোদিত হয়ে মামলা করে।

জানা গেছে, পৌরসভার নয়টি ওয়ার্ডে বরাদ্দকৃত ১৩৫০ প্যাকেট ত্রাণ কুমারখালীর মেয়রের নিকট থেকে কাউন্সিলররা গ্রহণ করেন। পরে এসব ত্রাণ তালিকাভুক্তদের মধ্যে বিতরণ না করে দেয়া হয় অন্যদের। এ ঘটনায় পুলিশ সুপার এর কার্যালয়ের জেলা বিশেষ শাখার গোপন অনুসন্ধানে উঠে আসে ত্রাণ বিতরণে অনিয়মের এ চিত্র।

পৌরসভার মেয়র ছামসুজ্জামান অরুন জানান, ত্রাণ বিতরণে কোনো অনিয়ম করা হয়নি। তবে বিষয়টি যেহেতু আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে, তাই তদন্তপূর্বক প্রকৃত সত্য করে আদালতেই তা নিষ্পত্তি হবে বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে কুমারখালী থানার ওসি মজিবুর রহমান বলেন, আদালতের আদেশ এখনো হাতে পাইনি। আদেশ পেলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY