দেশের মালিক হিসেবে আপনারা দাঁড়িয়ে যান: ড. কামাল

237
দেশের মালিক হিসেবে আপনারা দাঁড়িয়ে যান: ড. কামাল

 ঢাকা প্রতিনিধি: আমি কোনও দলের সদস্য হিসেবে বলছি না। দেশের মালিক হিসেবে আপনারা দাঁড়িয়ে যান। যেভাবে দেশ চলছে তা হতে পারে না। সুষ্ঠু ভোটের জন্য শপথ নিন। সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকবেন কারো সঙ্গে আপোষ করবেন না। বললেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।মঙ্গলবার (০৬ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত জনসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ড. কামাল হোসেন বলেন, যেভাবে মানুষকে বন্দি করা হচ্ছে এভাবে এটা করা যায় না। এসব অবৈধ, অপরাধ। এসব থেকে মানুষকে মুক্ত করতে হবে। আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়েছি, ঐক্যবদ্ধ থাকবো। সমবেত হয়ে সিদ্ধান্ত নেবো অন্যায় থেকে দেশকে মুক্ত হতে হবে। আমাদের সবাইকে মিলে পাহারাদার হতে হবে।তিনি বলেন, দেশে গণতন্ত্রের কথা বলে ক্ষমতার অপপ্রয়োগ করেছেন। আমাদের বাঁচার উপায় হলো জনগণকে দাঁড়াতে হবে। কোরআন তেলাওয়াত, গীতা ও ত্রিপিটক পাঠের মধ্যদিয়ে সাত দফা দাবিতে দুপুর পৌনে দুটার দিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জনসভা শুরু হয়। সরকারের পদত্যাগ,নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন, খালেদা জিয়াসহ সব রাজবন্দির নিঃশর্ত মুক্তি এবং সাত দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে এই  সমাবেশের আয়োজন করা হয়।জনসভায় সভাপতিত্ব করছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বেলা ৩টায় মঞ্চে উঠেন ড. কামাল হোসেন। এর আগে সভামঞ্চে উপস্থিত হন ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, জাফরুল্লাহ, মাহমুদুর রহমান মান্না, আ স ম আবদুর রব, সুলতান মো. মনসুর, মোস্তফা মহসীন মন্টু, আবদুল মালেক রতন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আবদুল মঈন খান।ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রথম জনসভাকে কেন্দ্র করে উদ্যান, শাহবাগ ও রমনা এলাকাসহ পুরো রাজধানীতে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করে পুলিশ। গেলো সোমবার (৫ নভেম্বর) ডিএমপি থেকে ২৪টি শর্ত যুক্ত করে ঐক্যফ্রন্টের এই সমাবেশের অনুমোদন দেওয়া হয়।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY