সাহস থাকলে পুলিশ আমাকে ধরুক: ড. কামাল

258

বিশেষ প্রতিনিধি: সরকার সংবিধান পরিপন্থী কাজ করছে বলে দাবি করেছেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেছেন, যে বলবে দেশে সুশাসন আছে, আমি বলবো সে মিথ্যুক। আমি পুলিশের সামনে দাঁড়িয়ে বলবো, পুলিশ অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করছে। সাহস থাকলে পুলিশ আমাকে ধরুক।

পুলিশকে বেআইনিভাবে গ্রেফতার করার সাহস কে দিয়েছে তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ এ নেতা।

বুধবার (১৯ ডিসেম্বর) সকালে বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট বার এ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে বাংলাদেশ মানবাধিকার ফেডারেশন আয়োজনে ‘ভোটাধিকার ও মানবাধিকার’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন ড. কামাল হোসেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, রাষ্ট্রদ্রোহিতা করে এদেশে অতীতে কেউ পার পায়নি। এখনো যারা করছে তাদেরকে ভয়াবহ পরিণতি ভোগ করতে হবে।

ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ এ নেতা বলেন, নির্বাচনের নাম প্রহসন কারো কাছে কাম্য নয়। নির্বাচন কমিশন সঠিকভাবে দ্বায়িত্ব পালন করছে না। তাদের হাতে যে ক্ষমতা আছে তা উপলব্ধি করতে হবে এবং সে অনুযায়ী মানুষের ভোটের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে।

ড. কামাল বলেন, বর্তমানে দেশে পুলিশ দিয়ে বিরোধীদের যে আক্রমণ, গ্রেফতার, হয়রানি হচ্ছে আমি জীবনে এরকম অবস্থা দেখিনি। সরকার চাইলে আমরা তাদেরকে ৩০০ আসন দিয়ে দিবো কিন্তু জোর করে নেওয়ার প্রয়োজন কি? এত কষ্ট করার দরকার নেই। তারা বলছে অসম্পূর্ণ কাজ করার জন্য আরও ৫ বছর প্রয়োজন। তাহলে আমাদের বলুক আমরা দিয়ে দিবো। এভাবে পুলিশ লেলিয়ে জোর করে ক্ষমতা নেওয়ার দরকার কি? স্বাধীনতার ৪৭ বছরে কেন এরকম অন্যায় গ্রেফতার, হয়রানি, ভাবতেও লজ্জা লাগে। আমি সরকারকে তাদের কাজের জন্য অভিনন্দনও জানাতে পারছি না।

 আর ও পুড়ুন অনশনে অসুস্থ লতিফ সিদ্দিকী হাসপাতালে ভর্তিhttps://doinikalap.com

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় নির্বাচন পযবেক্ষণ পরিষদের চেয়ারম্যান প্রফেসর নাজমুল আহসান কলিমুল্লা, সুপ্রিম কোর্ট বার সভাপতি জয়নুল আবেদিন, ঐক্যফ্রন্ট নেতা জগলুল হায়দার আফ্রিক প্রমুখ। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ড. মোঃ শাহজাহান।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY