‘নিয়ন্ত্রিত ভোটে’ জেতার আয়োজন আ. লীগের: বাম জোট

166
বাম গণতান্ত্রিক জোটের নির্বাচনের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন

বিশেষ প্রতিনিধি:  হুমকি-ধমকি দিয়ে ক্ষমতাসীন দল আনুষ্ঠানিকভাবে নিয়ন্ত্রিত ভোটের মাধ্যমে জেতার আয়োজন করেছে বলে দাবি করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। তবে তারা ভয়ভীতি উপেক্ষা করে সবাইকে ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর পল্টনে মুক্তি ভবনে বাম গণতান্ত্রিক জোট ‘নির্বাচনের বর্তমান পরিস্থিতি’ নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব জানায়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান জোটের সমন্বয়ক মো. শাহ আলম। সেখানে বলা হয়, ২০১৪ সালের মতো খালি মাঠে গোল করার সুযোগ না পেয়ে আওয়ামী লীগ সরকার প্রশাসনকে ব্যবহার করে হামলা-মামলা, হুমকি-ধমকি দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে নিয়ন্ত্রিত ভোটে জেতার আয়োজন শেষ করেছে। বর্তমান বাস্তবতায় দলীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব না।

সরকারে নীলনকশা বাস্তবায়নে নির্বাচন কমিশন তৎপর বলে অভিযোগ করে বাম জোট বলেছে, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, প্রশাসন ও ইসি এক হয়ে নিয়ন্ত্রিত নির্বাচন করার পরিকল্পনা করেছে। প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনা করে এই জোট বলে, ‘বিএনপির টাকা নিয়ে নৌকায় ভোট দিতে বলে তিনি অনৈতিকতাকে উসকে দিয়েছেন।’

সংবাদ সম্মেলনে বাম জোটসহ বিরোধী দলের প্রার্থী ও সমর্থকদের ওপর নির্যাতন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করা হয়। এতে বলা হয়, সেনা মোতায়েনের পরও পরিস্থিতির কোনো উন্নতি হয়নি।

বাম গণতান্ত্রিক জোট কাল সবাইকে ভয়ভীতি উপেক্ষা করে সকাল সকাল ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। এ ছাড়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য এই জোটের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মনিটরিং সেল খোলা থাকবে বলে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদল ইসলাম সেলিম, জোটের নেতা সাইফুল হক, বজলুর রশীদ ফিরোজ, হামিদুল হক, মোশরেফা মিশু প্রমুখ।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY