লেখক কবি সাহানুকা হাসান শিখার গল্প !!উন্নত লেখা,উন্নত ভাবনা ?? অতঃপর !

464
লেখক কবি সাহানুকা হাসান শিখা

উন্নত লেখা,উন্নত ভাবনা ?? অতঃপর !

সাহানুকা হাসান শিখা, ১৯৬৫ সালে সিলেটের কমলগঞ্জ উপজেলার আলীনগর চা বাগানে এক মুসলীম অভিজাত পরিবারে জন্মগ্রহন করেন ।মাতা মরহুমা জেবুন নেসা খানম ছিলেন একজন ধার্মিক আদর্শ সুগৃহিনী ।পিতা মরহুম সৈয়দ হাসান আলী চা বাগানের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ছিলেন ।পৈতৃক নিবাস কুলাউড়া উপজেলার মিনার মহল গ্রামে ।বাল্যকাল কেটেছে চা বাগানের সুন্দর মনোরম পরিবেশে ।
চার বোন ও এক ভাইয়ের মধ্যে উনি সবার বড়। খুবই অল্প বয়সে পরিণয় সূত্রে আবদ্ধ হন ।
বিয়ের পর সংসার কর্মের সাথে লেখাপড়াও চালিয়ে যান ।ছোটকাল থেকে সাহিত্যচর্চায় দারুণ মনযোগী ছিলেন ।২০১২ সাল থেকে লেখালেখি শুরু করেন, এবং অনলাইন সাহিত্য গ্রুপে নিয়মিত ছড়া কবিতা ,গল্প ,প্রবন্ধ লিখেন,উনার বেশ কয়েকটি যৌথ কাব্যগ্রন্থ ইতোমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে, ঝিঙেফুল,জনক ও জন্মভূমি ,খেয়া ,কবিতা কানন,এপার ওপার প্রভৃতি ।সাহিত্যকর্মে দক্ষতা ও অবদানের জন্য কলকাতার বিশ্ববঙ্গ বাংলা সাহিত্য একাডেমী থেকে কাব্য ভারতী উপাধীতে ভূষিত হয়েছেন ।বর্তমানে আমেরিকা প্রবাসী ও তিন কন্যা সন্তানের জননী ।
লেখক কবি সাহানুকা হাসান শিখা মনে করেন, যেখানে গমন নেই প্রত্যাবর্তনের প্রশ্নে সেই পথ যেমন বিভ্রমের জন্ম দেয় তেমনই ইতিহাস যানে পৃথিবী পাড়ি জমাচ্ছে আদি অন্তহীন কোন নিরুদ্দেশে ।সেই যাত্রাপথে কবির সহচর হয়ে উঠতে পারেন একমাত্র পাঠক । কালে কালে প্রবর্তিত যে পুরাণকথা তার নতুনত্বের ভঙ্গি ও দিকবলয় আবিস্কারের এক সহজাত তাড়না নিয়ে প্রকাশিত হলো কবির প্রথম একক কাব্যগ্রন্থ ‘ধূপশিখা’ ।

লেখক কবি সাহানুকা হাসান শিখার কথা : কবি জসিম উদ্দীনের সেই কবিতার কথা “গাছের ছায়ায় লতায় পাতায় মোর শিশুকাল ছড়িয়েছে হায়” চা বাগানের সবুজ সতেজ গাছের ছায়ায় ও মনোরম পাহাড়ির ঝর্না ধারায় মিশে ছিলো আমার সকল স্বপ্ন। অসহায় মানুষের জন্য কাজ করে যাবো কলম হাতে নিয়ে, অবলা নারীদের জন্য কষ্ট লাঘব করতে দাঁড়াবো তাদের পাশে। নারী নির্যাতন শারিরীক ও মানসিক দুটিই চলছে বর্তমান সমাজে। শিশুদের প্রতি অবহেলা ও যুব সমাজের অবক্ষয় সব মিলিয়ে নানা রকমের দু্র্ভাবনা মনকে বিষাক্ত করে, সেই সবের বিরুদ্ধে কলম চালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা আছে।
দেশে আসলেই আমি  চলে  যায় সেই চা বাগানে সুন্দর পরিবেশে সহজ সরল মানুষের কাছে।
এই মাসেই গিয়েছিলাম  কয়েকটি সাহিত্য গ্রুপের আমন্ত্রণে শ্রীমঙ্গল ও সমসের নগরে।
ভবিষ্যতে নারীর জীবনি নিয়ে নুরীর নিয়তী নামে একটি উপন্যাস লেখার ইচ্ছা আছে। যত দিন বেঁচে থাকবো স্বপ্ন দেখে যাবো, আর বাস্তবায়নে চেষ্টা চালিয়ে যাবো। নারী সমাজে উদ্দেশ্য আমি একটি কথাই বলবো তোমরা এগিয়ে চলো, শত বাঁধা ছিন্ন করে সবাই সমান তালে এগিয়ে চলো। অন্যায়ের সাথে আপোস করো না, প্রতিবাদ ছাড়া কখনো স্বাধীনতা আশা করা যায় না।
হে দুর্গম পথের সাথী যুবসমাজ, তোমারা এই জাতীর ভবিষ্যত। তোমার কাঁধে ভর করে চলতে শিখবে আগামী প্রজন্ম, তোমরা সঠিক পথ নির্ধারণ করো, লেখাপড়ার পাশাপাশি উন্নয়ন মুলক কাজ চালিয়ে যাও।
উন্নত লেখা,উন্নত ভাবনা, উন্নত দেশ এই হউক লেখক কবি সাহানুকা হাসান শিখার মুল প্রতিপাদ্য ।শুভ কামনা সাহানুকা হাসান শিখার জন্যে ।
আশিকুর রাহমান
সম্পাদক
দৈনিক আলাপ
Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY