“আবার ফিরে আসা”কবিতাটি সৃজনশীল লেখনির আলোয় আলোকিত করেছে ভারত এর তারুণ্যের কবি উৎপল বাগ

607
“আবার ফিরে আসা”কবিতাটি সৃজনশীল লেখনির আলোয় আলোকিত করেছে ভারত এর তারুণ্যের কবি উৎপল বাগ
ভারত এর তারুণ্যের কবি উৎপল বাগ

আবার ফিরে আসা —-

                                       উৎপল বাগ

দীর্ঘদিনের পরিশ্রম কত বিপুল আয়োজন
মুহূর্তেই ম্লান নিষ্প্রদীপ নিকষ অন্ধকারে !
ইতিউতি জোনাকির দীর্ঘশ্বাস
ভাবনার ভাগাড়ে ইঁদরের উৎপাত —

ভাঁড়ারের চাবি কোথায় যে রাখা
আবার হেঁশেলের গন্ধ গায়ে মেখে
যন্ত্র সভ্যতায় পা মেপে ফেলা ,
কত আলো কত আলো রাজপথ জুড়ে
আজ সবই অন্ধকারে গেছে ডুবে ।

গতকাল‌ও এই পথ ধরে কত মানুষ দলে দলে
আজ শুধু শূন্যতার ধুলো ঝড়ে
রাতকানা গোধূলির নিঝুম সন্ধ্যায়
ভোজবাজির মতো মিলিয়ে গিয়েছে দোকানের সারি।
রাত জাগা আলাপ-আলোচনা , সুখ দুঃখের ব্যস্ততা
কোন ম্যাজিশিয়ানের স্পর্শে মিলিয়ে গেছে আসমানী আকাশে।

পারফিউমের খালি শিশি , রঙচটা লিপিস্টিকের পলেস্তারা
ঘামে ভেজা নতুন জামাকাপড় শাড়ি-ব্লাউজ
ঘরের একয়কোণে ডাঁই করে ফেলা ,
খাবারের ফয়েলস্ গুলো এখনো পচছে ডাস্টবিনে
ইনবক্সে শিউলি গুলো ডিলিট করে
পদ্ম ফুলের হাসি গুলো মিলিয়ে গেছে সাতসকালে !

আবার হাই তোলার সকালে হাই হ্যালো
তাগাদা দেওয়া ফোনের রিংটনে বিরক্তির সুর ,
ভিআইপি টিআইপি সামলানোর ঝক্কি
কর্মহীন ব্যস্ততাহীন সারিবদ্ধ ফায়ার ব্রিগেডের গাড়ি
শুধু মহাকাব্যিক অপেক্ষায় —

আগামী দিনের পালতোলা আশায়
নদীর জলে ভাসছে শোলা , ভাসছে আধপচা পদ্মফুল
কত দামে যেন বিক্রি হয়েছিল অতশত মনে নেই।
হিসেব-নিকেশ কেনাবেচা যেটুকু যা ছিল বাকি
আজ সবই গেছে জলের দরে —
শুধু রয়ে গেছে চূর্ণ বিচূর্ণ স্মৃতি !
কত আয়োজন কত পরিশ্রম মুহূর্তে জলাঞ্জলি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here