জেসমিন জাহানের একটি আবেগধর্মী কবিতা “অদৃশ্য দেয়াল”

85

অদৃশ্য দেয়াল
জেসমিন জাহান

ভোরের আলো ফুটতে না ফুটতে
তীর ভাঙ্গা নদীটি দুকূল ছাপিয়ে
ভাসিয়ে নিয়ে গেলো ঘর-গেরস্থালি
মধ্যাহ্নের সূর্য স্পর্শ করার আগেই
প্রখর তাপে খসে গেলো পাখা
কঠিনতম বাঁধনে পড়লাম বাঁধা
উচ্ছ্বসিত আবেগ হলো নির্বাসিত
হতাশার মেঘ ঢেকে দিলো আকাশ
সংকুচিত হতে হতে অবশেষে
এতটুকু পৃথিবীতে আটকে গেলাম
ভুলে গেলাম- আমার অস্তিত্বকে
অতীতের ঠিকানাটা হারিয়ে
যুদ্ধের অনলে পুড়ে হলাম ছাই
আশা আর স্বপ্নের সমাধি হলো
ভবিষ্যতের সুন্দর এক ভূখণ্ড
ডুবে গেলো গভীর সমুদ্র জলে
বাতাসের সাথে সখ্য যে নদীর
সে আজ অবহেলিত- বাকবন্দি
বাঁক বদলের দুরাশা করে না আর
উত্তাল জলরাশি ভাসায় না দু’কুল
উদ্দাম-দুরন্ত ঢেউয়ের চিৎকার
তাকে আর উন্মনা করে তোলে না
সে এখন শুধুই নির্জনে; নিঃশব্দে
বয়ে যাওয়া এক অচ্ছুত নালা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here