তারুণ্যের কবিনাসরীণ জাহান রীণা এর জীবন ঘনিষ্ঠ অসাধারন কবিতা “হে প্রভু কৃতজ্ঞতা সৃষ্টির তরে”

202
তারুণ্যের কবিনাসরীণ জাহান রীণা এর জীবন ঘনিষ্ঠ অসাধারন কবিতা “হে প্রভু কৃতজ্ঞতা সৃষ্টির তরে”

হে প্রভু কৃতজ্ঞতা সৃষ্টির তরে

                                  নাসরীণ জাহান রীণা

তোমার সৃষ্টির তরে কৃতজ্ঞতা রাখি ,
নিযুত-কোটি কৃতজ্ঞতায়ও রয়ে যাবে বাকি।

মাতৃগর্ভে পাঠাইলা পিতার উপলক্ষে,
ভূমিষ্ঠ হয়ে ধরা দেখলাম দু’চক্ষে।

সুন্দর এ ভুবন দিলা মাটি,পানি,বায়ু,
তারই শোকর শেষ হবে না থাকতে মোর আয়ু।

চন্দ্র-সূর্য,আকাশ-পাতাল তোমার দয়ার দান,
পাহাড়-পর্বত,নদী-নালা, সুশোভিত উদ্যান।

ফুল-ফল-ফসল দিলা মানবের পালনে,
রৌদ-খরা-বৃষ্টি দিলা যখন প্রয়োজনে ।

কৃতজ্ঞতা তোমার’পরে আমি মূসলমান,
ইসলাম আমার ধর্ম ; রেখেছি ইমান।

কৃতজ্ঞতা আমার গ্রন্থ ; শ্রেষ্ঠ ‘আল-কোরআন ‘,
যাতে আছে মানবের পূর্ণ জীবন বিধান।

হাজার মাসের শ্রেষ্ঠ মাস মাহে রমজান,
রহমত,মাগফেরাত, নাজাত তোমার শ্রেষ্ঠ দান।

‘কোরআন’ নাজিল করলে এই পবিত্র মাসে,
এই মাসেরই শ্রেষ্ঠ রাত ‘শবে ক্বদর ‘ আছে।

কৃতজ্ঞতা জানাই প্রভু শ্রেষ্ঠ নবী দিলে,
রোজ হাশরে ভাবনা কি আর তাঁর সুপারিশ পেলে।

তাঁর আদর্শে গড়তে জীবন ; হুকুম যে তোমার,
কৃতজ্ঞতা তার তরেও ; উম্মত আমি তাঁর।

এত এত সৃষ্টি তোমার মানবের কল্যাণে,
কৃতজ্ঞতার শেষ হবে না-অসংখ্য গুণগানে।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY