ওপার বাংলার কবি বিকাশ চন্দ এর কবিতা “প্রত্ন কালের দীক্ষা”

307
Doinik-Alap-Poem-Kobi-কবি-বিকাশ-চন্দ-Kobita-কবিতা-প্রত্ন কালের দীক্ষা
কবি বিকাশ চন্দ

প্রত্ন কালের দীক্ষা

বিকাশ চন্দ

আদিগন্ত অসীম নীল রাত দেখে গ্রহান্তরে নক্ষত্র শরীর
মহা শূন্যে ভেসে যায় জীবনের অধিকার,
কয়েকশো’ কোটি দীর্ঘশ্বাস প্রতিদিনই বাঁচে বিশ্বাসে—
তবুও নির্দিষ্ট ঠিকানা খোঁজে কত না নিরুদ্দেশ জীবন।

এক গুচ্ছ ফুলের আড়ালে হাতে হাত সাক্ষী আগুন
অনাহুত জীবনের গান মুঠো মুঠো শিউলি দেখে সকাল,
আলিঙ্গন ভেঙে তখন শান্তি জলের ধারা—
নদী জলে স্নান সারে সমুদ্র উজান।

অব্যক্ত বেদনা কথা বহুবার কথা গল্প গানে
হলুদ বাটা হাত চোখে জল ধোঁয়া আগুন উত্তাপ,
নোয়া শাঁখা সংসারী অব্যক্ত কথা নীরব নিহারিকা—
সমস্ত আগুনে সবাক সত্তা প্রতিদিন আত্মাহুতি।

অনেক সহজ সত্যি দু’চোখে টলটলে জল ত্রিনয়ন খোঁজে,
পায়ে পায়ে হিরক দ্যুতি মাখে চির চঞ্চলা দূর্বা—
ধারে কাছে সবুজ আঁচল ঘিরে থাকে গ্রামের আকাশ—
তবুও আহত কথারা মন প্রাণ জুড়ে শরীরে সংসারে।
কত কিছুই না প্রশ্নাতীত কথকতা জিজ্ঞাসার মতো
ঝর্নার উৎস খুঁজি দেশ থেকে দেশান্তরে চৈতন্য আবাস
প্রতিদিনই ধুলো মাখি মায়াময় গোধূলি বেলায়
খুঁজে ফিরি অনড় শরীরে প্রত্ন কালের দীক্ষা।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY