ভাষারচিন্তা ,শুভ‌বো‌ধে মায়ের ভাষার ডাক সমসাময়িক কবি বাহার উদ্দিন আহম্মেদ শ্রাবণ এর কবিতা “হে বায়ান্ন ”

493
কবি বাহার উদ্দিন আহম্মেদ শ্রাবণ এর কবিতা “হে বায়ান্ন ”
সমসাময়িক কবি বাহার উদ্দিন আহম্মেদ শ্রাবণ

হে বায়ান্ন

     বাহার উদ্দিন আহম্মেদ শ্রাবণ
—————

হে বায়ান্ন;
তুমি দিয়েছ আমায় অসংখ্য বর্ণমালা, দিয়েছ বাংলা ভাষা,
নিয়েছ কেড়ে প্রাণ অযুত মায়ের তরুণ সেনা।
আজ গর্বের সহিত বলতে পারি তুমি আমার বায়ান্ন, তুমিই বাংলা ভাষা।

হে বায়ান্ন-
তোমার চেতনা নিয়ে বেচে আছি আজও,
এই বিশ্বে যত দিন থাকবে বাংলা,
ঔজ্জ্বল্য হয়ে থাকবে তুমি বায়ান্ন।
লাখো শহিদের রক্তেমাখা,
দিয়েছ বাংলাকে রক্তিম কৃষ্ণচূড়া।

হে বায়ান্ন-
নিষ্প্রাণ দুপুর নামে, সময়ের নিশ্চিন্ত উদ্যানে
কৃষ্ণচূড়া রক্তে ভেজা ফেব্রুয়ারীর আহ্বানে
সাড়া জাগিয়ে চেতনাকে লালন করে ছিনিয়ে আনতে গিয়েছিলে মাতৃভাষাকে।

হে বায়ান্ন-
পেয়েছি মিনার, ভেঙ্গেছে মিনার ঐ হানাদের দল,
তবে কি তাতে চেতনা রয়েছে মনে প্রবল,
গড়েছি নতুন মিনার।

হে বায়ান্ন-
তুমি কি জানো, তুমি আজ বিশ্বজয়ী-বিশ্বময়ী!
তোমার ছেলেরাই সেই একমাত্র জানি,
যারা বুকের ছাতির ঢালে ছিনিয়ে এনেছে
তোমার মুখের বাংলা ভাষাকে।

হে বায়ান্ন-
আজ আমি গর্বিত, গর্ববোধকরি আমার ভাষা নিয়ে পৃথিবীর বুকে
উচ্চস্বরে বলি তুমি আমার বায়ান্ন
তুমিই বাংলা ভাষা।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY