ভারত থেকে কলমযোদ্ধা-মনীষা কর বাগচীর নির্বাক অন্তরের দুটি কবিতা

145
দৈনিক আলাপ
ভারত থেকে কলমযোদ্ধা- মনীষা কর বাগচীর নির্বাক অন্তরের দুটি কবিতা

রঙিন সকাল
মনীষা কর বাগচী

ঝম ঝম ঝম বৃষ্টি জুড়ে একটি নরম দৃষ্টি এলো
চোখের পাতায়, ঠোঁটের পাতায়, আনকোরা এক ঝিলিক ছুঁলো।

নেয়ে উঠলাম, নেচে উঠলাম, গেয়ে উঠলাম ছুঁয়ে থাকার গান
তোর আকাশে, তোর বাতাসে, অপূর্ব সেই সূর্য ডোবার ভান।

এক মুঠো ধান, এক মুঠো গম, ভূবন জুড়ে ছড়িয়ে দিলাম
তোর উঠোনের মটর শুঁটি, কোঁচর ভরে কুড়িয়ে নিলাম।

নুয়ে পড়া, ঝিমিয়ে পড়া, স্বপ্নটুকু, এক ফুঁয়েতে উড়িয়ে দিলাম
এক নিমেষে সবটুকু ক্লেদ ধুয়ে নিয়ে, উচ্ছ্বল তরঙ্গ হলাম।

শরৎজুড়ে সোনালী রং ফড়িং নিয়ে রঙবেরঙের গান বাঁধলাম
একদিন নয়, দুদিন নয়, প্রতিটি দিন তোর বুকেতে গলা সাধলাম।

প্রেমরসে সিক্ত জ্যোৎস্না, গোলাপ জলে রঙিন সকাল
তোর হাতে হোক জীবন দর্পণ, অশোক পলাশ ফুটুক অকাল।

নিমন্ত্রণ
মনীষা কর বাগচী

নিমন্ত্রণ রইল
হিসাব নিকাশের বাইরের দুনিয়ায় এসো
যেখানে অন্ধকার নেই, প্রখর রোদ নেই
আছে শান্তি, আছে আলো
আছে ক্ষমা, আছে প্রেম…

হিংসার আগুন জ্বলে না কোনো চোখে
গায় না কোনো পাখি অমঙ্গলের গান!

ভাল থাকার সুনামি
বয়ে আনে অনাবিল আনন্দ ধারা
পুজো পার্বনে সকল ঘরে উন্মুক্ত উচ্ছাস…

জোছনায় ভেসে যায় নীল পাহাড়
ঝরনারা গায় লোক সঙ্গীত
নদীর মনে ছলাৎ ছল, বাজে রুনু ঝুনু প্রীত।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here