প্রেম ভালোবাসা দুটোই আপেক্ষিক বিষয়-কবি ও সংগঠক মাহমুদ তালুকদার।

66
প্রেম ভালো বাসা দুটোই আপেক্ষিক বিষয়- কবি ও সংগঠক মাহমুদ তালুকদার।
বা.স.প এর সম্মানিত সদস্য কবি ও সংগঠক মাহমুদ তালুকদার।

বাংলাদেশ সাহিত্য পরিষদের সাক্ষাৎকার পর্বে এবারের অতিথি ছিলেন বা.স.প এর সম্মানিত সদস্য কবি ও সংগঠক মাহমুদ তালুকদার।

* মিথেল—আপনার কাছে প্রথম প্রশ্ন, আপনার শৈশবকাল কেমন ছিল?
***মাহমুদ –আমার শৈশবকাল ছিলো দুরন্তপনায়, স্কুলে যাওয়ায় অনীহা ,সন্ধ্যার পর পড়তে গেলে ঘুমিয়ে পরতাম,স্কুল বন্ধের দিন পালিয়ে মামা-খালার বাড়িতে চলে যাওয়া বিবিধ কারনে মায়ের হাতে বেত্রাঘাত নিত্য নৈমিত্তিক ব্যাপার ছিলো, আর স্কুল ক্লাসে শান্ত পরিবেশ অশান্ত করতে আমার কোন জুড়ি ছিলো না।

** জুই-মাহমুদ ভাই, আপনার প্রিয় কোনো মুহুর্তের কথা বলেন যা আপনাকে মাঝে মাঝে আপ্লুত করে?
***মাহমুদ -জুই আপু আসলে ব্যক্তিজীবনে আমি একেবারেই আবেগি, ব্যক্তিগত ও পারিপার্শ্বিক জীবনের অসামঞ্জস্যপূর্ণ এবং অমানবিক বিষয় গুলো আমাকে খুবই আবেগ তাড়িত করে।

***ফাতেমা, আপনার লেখায় সব সময় এক ধরনের দ্রোহ-প্রতিবাদী সুর ভেসে ওঠে, কারনটা বলবেন কি?
***মাহমুদ -ফাতেমা আপু, আমি ছোটকাল থেকে একরোখা, প্রতিবাদী প্রকৃতির ছোট কালে খুব কাছ থেকে অতি নিকটজনদের অনাচার, অবিচার দেখে মনে এক ধরনের প্রতিবাদী সত্বা জাগ্রত হয় যা পরবর্তী সময়ে লেখনীতে প্রকাশ পায়।

* শামিমা ,আসসালামুয়ালাইকুম। মাহমুদ ভাইয়া আপনার কবি বা লেখালেখি করতে ইচ্ছে হলো কেন?
***মাহমুদ -ওয়ালাইকুম আসসালাম, জি শামিমা আপু, কবিতা লেখাটা কখনো প্রথমে সাধনা করে লেখতে হয়না, মুলত হঠাৎ কোন ঘটনার অবতারণাই কাউকে কবি বা শিল্পী হয়ে উঠতে সাহায্য করে।

* মিথেল -প্রেমের কবিতা কাকে কেন্দ্র করে লিখেন?
***মাহমুদ -মিথেল ভাই,আমি প্রেম করে বিয়ে করলেও কেন যেন লেখনিতে প্রেমের কাব্যরস সৃষ্টি করতে পারিনা, যদিও দু চারটি প্রেমের কবিতা লিখেছি তবে কোন ব্যক্তি বিশেষকে কেন্দ্র করে নয়।

* জুই –আপনার লেখার প্রেরণা কোথা থেকে পেয়েছেন?
***মাহমুদ -জুই আপু, মুলত আমার কাব্যিক আদর্শ হলেন কাজী নজরুল ইসলাম, তার প্রতিটি লেখা আমার কাব্যিক সাধনার খোরাক জোগায়।

****শামীমা—প্রেম ও ভালবাসা এই দুটি বিষয়ে আপনার মন্তব্য জানতে চাই,

***মাহমুদ –শামিমা আপু, প্রেম ভালো বাসা দুটোই আপেক্ষিক বিষয়, এর বিশ্লেষণ করতে গেলে হয়তো আর কারোর উত্তর দেবার সময় নাও হতে পারে। তবে প্রেম বিষয়টি ভালবাসার চেয়েও গভীরতর অর্থবহ।

** রাজিয়া, আসসালামুয়ালাইকুম। কোন বিষয় নিয়ে লিখতে বেশি স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন প্রিয় কবি? কবে থেকে আপনি লেখা শুরু করেন এবং লেখার প্রেক্ষাপট যদি একটু বলতেন সংক্ষেপে।
***মাহমুদ -ওয়ালাইকুম আসসালাম, প্রিয় রাজিয়া আপু,বস্তুত পরিবার,সমাজ,রাস্ট্র ধর্ম,অনাচার অবিচার ইত্যাদি বিষয়গুলো আমার লেখনীতে উঠে আসে। যতদুর মনে পড়ে পঞ্চম শ্রেনীর বার্ষিক পরীক্ষায় বাংলা উত্তরপত্রে একটু ফাঁকা জায়গা দু লাইন ছড়া লিখেছিলাম, অবশ্য এর জন্য মারও খেয়েছিলাম।

** জুই –মাহমুদ ভাই, আপনাকে কোন এক নির্জন স্থানে কিছুদিনের জন্য পাঠানো হলে কী কী নিয়ে যাবেন?
***মাহমুদ -জুই আপু, হাসালেন আরোও হাসলাম মিথেল ভাইয়ের আরেকটি শব্দ যোগে, যা হোক হই হুল্লোড়ের পরিবেশে বড় হলেও আমি এখন একাকীত্ব ও নির্জনতা খুব পছন্দ করি, হ্যাঁ যদি আমাকে আপনারা নির্জন নির্বাসনে পাঠাতেই চান তবে দুটো জিনিস সাথে নিয়ে যাবো একটি হলো পবিত্র কুরআন আর অন্যটি হলো পিতা মাতার আশির্বাদ। জানিনা আমার এই চাওয়া পাওয়া আপনাদের কতটা যুক্তি গ্রাহ্য হলো

***ফাতেমা—ভাইয়া আপনাকে যদি কোন কবিতা বা উপন্যাসের চরিত্র হতে সুযোগ দেওয়া হয়..কোন চরিত্রটি ধারণ করতে চাইবেন??
***মাহমুদ -ফাতেমা আপু, সমাজের একজন কর্মঠ ও হতভাগ্য পিতার চরিত্র

* প্রফেসর নূর এ খান — ,প্রিয় কবি ভাই… আমার ১ টি সহজ উত্তর প্রয়োজন… সঠিক প্রশ্ন নয়…. তবে জানা.. আর তা হচ্ছে কবিদের প্রধান সমস্যা কি বলে আপনি মনে করেন!??
***মাহমুদ –জি খান স্যার, আপনাকে ধন্যবাদ, চমতকার একটা প্রশ্ন করেছেন। কবিদের সমস্যা সীমাহীন,কেন? তা হলো কবিতা একজন কবির কাছে কি চায় বর্তমান সময়ের প্রায় সব কবিই বুঝতে চান না অথবা বুঝেন না। সেটা বুঝেছেন সদ্য প্রয়াত কবি আল মাহমুদ, একটি মাত্র কাব্য গ্রন্থে বুঝিয়ে দিয়েছেন কবি হেলাল হাফিজ। আর বর্তমান সময়ে প্রতিযোগিতা মূলক কবিতা লিখতে গিয়ে অনেক প্রতিভাবান কবিই তাদের কবি সত্বা হারিয়ে ফেলছেন আর এ কারণেই এসব কবিতা এখন পাঠক প্রিয়তা পাচ্ছেনা।

** দিলরুবা –মাহমুদ ভাই, আপনার লেখালেখির অনুপ্রেরণা কে? আপনি প্রথম কী দিয়ে লেখা শুরু করেন? মানে লেখার বিষয় কী ছিলো?
***মাহমুদ – ধন্যবাদ প্রিয় দিলরুবা আপু, যদিও এর কিয়দংশ উত্তর আগেই দিয়েছি তারপরও আরেকটি কথা বলাবাহুল্য যে ছোট কালে অর্থাৎ পঞ্চম শ্রেনীর পরিক্ষার উত্তর পত্রে আমার লেখা দু লাইন ছড়ার জন্য শিক্ষকের বেত্রাঘাতের শিকার হয়েছিলাম এবং আমার মায়ের কাছেও বিচার চলে গিয়েছে, তবে আমার মা তখন থেকেই আমাকে উতসাহ যোগাতেন হয়তো এখানে আসাটা তারই উৎসাহের ফল।

* জুই –মাহমুদ ভাই, আপনার পারিবারিক সদস্য সম্পর্কে জানতে চাই?
***মাহমুদ -জুই আপু, আমরা তিন ভাই এক বোন, ভাইদের মধ্যে আমি তৃতীয়, সর্বকনিষ্ঠ বোন। বড় ভাই বন বিভাগের ডিপুটি রেঞ্জার, মেজো ভাই স্থানীয় স্কুলের শিক্ষক, ছোট বোন গৃহিনী।
আমি গাজীপুর একটা পোষাক কারখানার প্রজেক্ট ডিরেক্টর হিসেবে কর্মরত। বিবাহিত, এক মেয়ে ও এক ছেলে। মেয়েটা এবার জেএসসি পরিক্ষা দিচ্ছে,আর ছেলেটা দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী।

**** মিথেল –ধন্যবাদ ভাই আজ আমাদের সময় দেয়ার জন্য আমার শেষ প্রশ্ন, বর্তমান কবি লেখকদের আপনি কী বার্তা দিতে চান?
***মাহমুদ –বর্তমান কবি লেখক দের প্রতি আমার একটাই বার্তা, কবিরা কারোরই চাকর নয়,কবিরা নিজের বিরোদ্ধেও বিদ্রোহ করতে প্রস্তুত থাকে, কোন প্রভাবশালীদের সাথে মিশে নয় বরং প্রান্তিক জনতার সাথে মিশুন,তাদের প্রতিটি কথা চাওয়া পাওয়া যেন আপনাদের লেখনীর খোরাক হয়।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY