লন্ডন, যুক্তরাজ্য থেকে লেখক, কবি পম্পি বড়ুয়া লিখেছেন কবিতা-“শিশুশ্রম ”

566
লন্ডন, যুক্তরাজ্য থেকে লেখক, কবি পম্পি বড়ুয়া

শিশুশ্রম

———————কলমে:-পম্পি বড়ুয়া

শৈশব কাটে যেসব শিশুদের কষ্টে,অভাবের তাড়নায় ,
তাদের জন্য ক্ষুধার রাজ্যে পৃথিবী যেন সংগ্রাম ময়।

শিশুরা বাঁচার জন্য জীবন জীবিকার জন্য বিস্মিত ,
সমাজের দরিদ্র শিশুরা হয় নিপীড়িত নিগৃহীত অবহেলিত।
ঝুঁকিপূর্ন কারখানার কাজে জড়িত প্রতিনিয়ত ,
জীবনের নেই কোন নিরাপত্তা হয় নির্যাতিত।

পরিবারের অভাবের কারনে ঝুঁকে পড়ে শিশুরা ,
মালিকের কম মজুরীতে অমানবিক খাঁটে তারা।

নিশ্চিত পায়না তারা নায্য মজুরী তবুও খেটে মরে,
তাদের মত অসহায় শিশুর খোঁজ সমাজে কে করে?

হাত পুড়ে ,পা ভাঙ্গে,চোখ যায় আগুনে ঝলসে,
তবুও জীবনের শেষ মূহুর্ত পর্যন্ত করেনা আলসে।

সমাজের অবকাঠামো পাল্টানো উচিত,
ভেদাভেদ ভুলে করো শিশুদের কল্যাণে হিত।

বিশ্বের যত দেশে শিশুশ্রম আছে বন্ধ করো ,
তাদের সুন্দর ভবিষ্যত নিশ্চিত করতে তোমরাই পারো।

আগে শিক্ষা হবে নিশ্চিত কাজ আটারো বছর পরে ।
শিশুদের জন্য ভালো উদ্দ্যোগ একটি মহত কাজ করে।

বিদ্যালয়ের বাধ্যতামূলেক শিক্ষা প্রতিটি শিশু নিবে,
সরকারী গঠনমুলক শিশু আইন প্রনয়ণ হবে।

শ্রমিকের যথার্থ সম্মান দিয়ে শিশুশ্রম বন্ধ করতে হবে।
প্রতিটি শিশুর ভবিষ্যত নিশ্চিত নিরাপদ করতে হবে।

পৃথিবীকে তাদের বসবাস যোগ্য করতে হবে,
তাঁরাই আগামীতে দেশ গড়ার কারিগর হবে।

শিশুশ্রম একটি অমানবিক সামাজিক ব্যাধি,
সবার ঐকান্তিক সহযোগিতায় হতে পারে বৃহৎ শুদ্ধি।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY