“সেই ভালো ছিল”কবিতাটি সৃজনশীল লেখনির আলোয় আলোকিত করেছে সৈয়দা কামরুন নাহার শিল্পী।

249
সৈয়দা-কামরুন-নাহার-শিল্পী-

সেই ভালো ছিল

                   সৈয়দা কামরুন নাহার শিল্পী

সেই ভালো ছিল
নদীতে অশান্ত পানি ছিল নৌকো ছিল বজরা ছিল নদীতীরে ঘাট ছিল।
কলসি কাঁখে বধু ছিল
বাজুবন্ধ ছিল
কোমড়ে তার বিছে ছিল
নৌকর মাঝির মুখে ভাটিয়ালি গান ছিল।

সেই ভালো ছিল
মধ্যরাতে দূর হতে ভেসে আসা বাশির সুর ছিল।
সবার চোখে স্বপ্ন ছিল ভালোবাসার গন্ধ ছিল সেই ভালো ছিল।

রাজবাড়ীতে রাজা ছিল রানী ছিল,
দাসী বাদীর সংখ্যা ছিল বাইজি ছিল ঘুঙুর ছিল।

আলতা ছিল সুগন্ধি ছিল যুবকের বুকে ঘর বাঁধার স্বপ্ন ছিল
মায়ের মুখে হাসি ছিল।
নোলক ছিল ঝুমকো ছিল পান বাটায় পান সাজানো ছিল।

তামাক ছিল জর্দা ছিল ফুরফুরে বাতাস ছিল–
সেই ভালো ছিল পান্তা ভাতে শুটকি ভর্তা ছিল ইলিশ ছিল,
চাষির মুখে হাসি ছিল।

জারি ছিল সারি ছিল
তপ্ত রোদে ক্লান্ত হলে বটতলাতে বাঁশের মাচা পেতে জিরিয়ে নিতে পুঁথি পাঠ ছিল।

সেই ভালো ছিল
বৈশাখ এলে মেলা ছিল
লাঠি খেলা ছিল পুতুল নাচ ছিল,
বাইস্কোপে ছবি ছিল গল্প ছিল।

বর্ষা এলে মাথাল ছিল মান ছাতা ছিল
ভিজে ভিজে এ গাঁও হতে
ও গাঁও যেতে
পাড়া পড়শিতে মনের কথা ছিল, কচু কেটে ষোল গুটির খেলা ছিলো।

সেই ভাল ছিল

সবাই মিলে একে অপরের ভালো চেয়েছিলো।
হা-ডু-ডু খেলা ছিল হইহুল্লোড় করে মাছ ধরার বায়না ছিলো
সেই ভালো ছিলো
দুধে-ভাতে ভাতে বাঙ্গালী ছিলো।।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY