বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে — দিলু রোকিবা এর বিশ্লেষণ ধর্মী কবিতা “মুক্ত করো ভূমি ”

199
বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে -- দিলু রোকিবা এর বিশ্লেষণ ধর্মী কবিতা “মুক্ত করো ভূমি ”

বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে—–

🌲 মুক্ত করো ভূমি 🌲

— দিলু রোকিবা

এই উষ্ণ কাঠফাটা,ও ভরা মৌসুমে, জমিনে গড়তে হবে এক শীতল পরিবেশ।
মহামারী বিলুপ্ত করে গড়ে তোলো সবুজ বাংলাদেশ।
একটি কথা এই ভূ-প্রাণ করতে চাই শীতল স্মরণ।
পরিবেশ বাঁচাতে পারিনা আমি তবুও করছি চেষ্টা
যেমন করে মুক্ত হবে সোনার বাংলা দেশটা।
এই বজ্রপাতে কতো প্রাণ গ্যাছে, আজো যাবে তাই আমি শঙ্কিহান।
বৃষ্টি রহমতের বর্ষণ, কিন্তু অতি বৃষ্টি ক্ষতির কারণ •••
এখন শব পোড়া ও লাশের গন্ধ পেলে যে আমার হু হু করে কেঁদে ওঠে মন।
আহা কি দিন ছিল ঠিক আগের মতো হবে কি এখন?
মুক্তির প্রেরণা দিয়ে- পারিনা তো আমি কবিতার ছন্দ,
আপন ভূমিতে সবুজ মনের জমিনে – প্রান্তরে
এই টুকু দ্বিধা ও দ্বন্দ্ব•••

শত চেষ্টা করেও পারিনা ঠেকাতে পরিবেশ বিপর্যয়,
বেশি করে রোপন করে নাও বৃক্ষ যদিও তোমার সয়।
গাছের মধ্যে সেরা গাছ পামঅয়েল,
পরিবেশের জন্য এই গাছ খাঁটি জুয়েল•••
অক্সিজেন দিবে অন্য গাছের চেয়ে দশগুণ
আর কার্বন-ডাইঅক্সাইড করবে শোষণ•••
মাটির ক্ষয়, ঝড় বন্যা আর জলোচ্ছ্বাস
সবচেয়ে বেশি ঠেকাতে পারে পামগাছ••
যে কোন জায়গায় ফলাতে পারেন এই গাছ
এ থেকে উপকার পাবেন বারোমাস।
গাছ হল পরিবেশের বন্ধু গাছ হচ্ছে অমূল্য,
প্রকৃতির পুকুর ভরা মিঠা মাছের তুল্য।
সুজলা সুফলা শস্য শ্যামলা সবি– তো আল্লাহর দান,
তরুলতা বৃক্ষই ছাড়া উর্বর ভূমি হারায় প্রাণ••

খাদ্য বস্ত্র স্বাস্থ্য শিক্ষা থাকার বাসস্থান,
গাছবিনা কার সাধ্য করে এর সংস্থান?

অর্থ বিত্ত সবই পাবো এই কথাটি মিথ্যা না,
প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষা করতে গাছের হয়না তুলনা।
জীবাশ্ম জ্বালানির পরিবর্তে করলে ব্যবহার বায়োগ্যাস,
জীবনের প্রয়োজনে যদি দাও শ্রম- বাঁচতে এই সবুজ পরিবেশ।

সবুজ প্রান্তর গঠন করে ভূমিকে
জাগাও সোনার বাংলাদেশ।

জমির সার মাছের খাবার,
কৃষি প্রধান দেশেতে তাই পরিবেশবান্ধব চাষাবাদ দরকার।
গোবর দিয়ে ঘুটে বানিয়ে পরিবেশ দূষণ করে,
পাবে দূষিত জ্বালানি আর পাবে কিছু ছাই।
এর বেশি পাওয়ার কিন্তু কোন উপায় নাই।
ফসল উৎপাদনে জৈবসারের কোন তুলনা নাই—-
খরকুটো, আর্বজনা, গোবর্জ্য মানববর্জ্য ও বিষ্ঠাতে তা পাই,
রাসায়নিক সার ও কীটনাশক করলে ব্যবহার
উর্বরতা নষ্ট হবে উৎপাদন শীলতার
জৈবসার আর জৈব কীটনাশক জমির হল প্রাণ
কৃষক ভাইদের জন্য এটা হলো বছর ব্যাপী ত্রাণ।
উৎপাদন ব্যয় কম হবে অর্থ হবে সাশ্রয়
জৈবসারে রক্ষা করবে সকল জমির ক্ষয়।
চেষ্টা যদি করে কৃষক ভাইরা ব্যর্থ হবেনা।

এর চেয়ে সহজ উপায় আর তো পাবেনা।
পণ কর আজ সবাই মিলে কৃষক শ্রমিক জেলে,
করোনার এই ক্রান্তি কালে পরিবেশ কে সবাই সবুজের সমারোহে গড়ে তুলি
এক নতুন জন্মভূমি।
রাখবনা আর কোন জমি অনাবাদি ফেলে।
যে ভাবেই হোক খাদ্যের অভাব করব আমরা দূর,
সোনালি ফসলের আগমনে আনব নতুন এক ভোর—
অভাব অনটন রইবে নাকো থাকবে না কোন ক্লেশ,
বিশ্বের মাঝে পরিচিতি পাবে সোনার বাংলাদেশ,
সবুজের সমারোহে মধুর পরিবেশ
সকল দেশের রাণী
সে যে আমার বাংলাদেশ• প্রিয় জন্ম ভূমি•••🌲🌾🌳☘

ঢাকা, মোহাম্মদপুর
সময়ঃ বৃষ্টি ভেজা দূপুর দুই ঘটিকা।
( স্বয়ং সংরক্ষিত)

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY