ভারত থেকে কবি-শিখা গুহ রায়ের জীবনমুখী কবিতা“আনমনে”

385
ভারত থেকে কবি- শিখা গুহ রায়ের জীবনমুখী কবিতা“আনমনে”

আনমনে
শিখা গুহ রায়

এখনও মাটির উত্তাপ পাই
সেই দেহের উষ্ণ-উত্তাপ, মনে প্রাণে লেগে থাকে!
যে মানুষগুলো মিশে থাকতো আদরে ভালোবেসে
সে মানুষগুলো কেন যে স্মৃতির পাতায় ঘুরপাক খায়?
তবুও হেঁটে,হেঁটে দূরে যায় ভালোবেসে
হায় ভালোবাসা কেন যে এমন!

কিছু বানীতে মুখরিত করতো মন-প্রাণ
এখন সেই সব দূরে বহুদূরে
রেখেছিলো কিছু অর্জন, মনের অজান্তেই
এখন শুধু সকাল দুপুর বিকেল কাটে ভাতঘুমে।

ঘুম থেকে জেগে দেখি দেহ চুমে যায় কালসাপ
বেগানা পুরুষর নীড়ে।
সবই যেনো দিয়ে গেছে ভুলে ভুলে মনের অজান্তে।

আমি মাটির উত্তাপ,
পাই সেই সব পুরুষের গন্ধ যা এখন অচেনা
দেহের উত্তাপ, সেইসব মানব এখন অনেক দূরে
এলোচুলের ঘ্রাণ পাই অরণ্যলতায়,
বৃক্ষের পাতায় পাই তাহাদের পরিচর্যার হাত।

তাদের স্পর্শ পাই,
পাই সুঘ্রাণ স্পন্দনে স্পন্দনে
আমি ঘুমের ভেতরে তাহাদের পায়ের শব্দ পাই।
রূপকথার ছলে তারা দেখেছে আমার প্রেম,
আর আমি একটু সুখের আশায়
বুদ হয়ে থাকি আনমনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here