নারী দিবসের বিশেষ কবিতা“মানুষ”.লিখেছেন সম সাময়িক কবি ও লেখক নাসরিন জাহান মাধুরী

453
সম সাময়িক কবি ও লেখক নাসরিন জাহান মাধুরী

মানুষ

   ***নাসরিন জাহান মাধুরী

প্রিয় কবি, নারীদের নিয়ে ভাবার জন্য কেউ আজো আছে
ভাল লাগলো তাই,এবার বলি দুঃখের কথা।
নারী জন্মটাই কি তার অপরাধ? ঐ কাপুরুষ গুলোর হাত
থেকে বাঁচার জন্য সে আর কতকাল নিজেকে কর্কশ
খোলসে আটকে রাখবে শামুকের মত?
নিজেকে প্রকৃতির মাঝে গোপন করে রাখবে?
বৃক্ষ হয়েও পায় কি রেহাই ঐ পিশাচদের হাত থেকে?
কুঠারের আঘাতে খন্ড বিখন্ড সেই বৃক্ষ।
প্রস্তরে পিষ্ট কর্কশ খোলস, ঘরেই যদি থাকে দানব
সে আর কোথায় লুকাবে বল? তার হৃদয়টাকেও
সে হৃদয়ে রাখেনি, রেখেছে লুকিয়ে পায়ের তলায়
অ্যাকিলিসের মত, রেহাই পায়নি সে।
তবুও পায়নি রেহাই, অপমান অসম্মান আর
অবহেলায় সে ক্ষতবিক্ষত হৃদয় থেকে অবিরাম
উৎসারিত হয় কষ্টের নীল স্রোত।
সুশিক্ষিত বলিষ্ঠ নারীও বারবার হয় পরাজিত।
সমাজটাই তো দ্বিধা বিভক্ত, নারীকে শুধুই নারী ভবো।
পুরুষরা থাকবে মহান পুরুষ হয়ে কিংবা কাপুরুষ হয়ে।
তবে মানুষ হবে কারা? হোমো সেপিয়েন্স?
তবে কি বৈজ্ঞানিক নামকরণের ঐ তত্ত্ব ভিত্তিহীন?
নতুন নামকরণ নীতি প্রবর্তিত হোক তবে,
নারী, পুরুষ, মহাপুরুষ আর কাপুরুষ।
মানুষ শব্দটাই বিলুপ্ত হোক।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY