“জ্যোৎস্নাকীর” কবিতাটি লিখেছেন সাহিত্যের অন্যতম সারথি জেসমিন জাহান।

249
“জ্যোৎস্নাকীর” কবিতাটি লিখেছেন সাহিত্যের অন্যতম সারথি জেসমিন জাহান।

জ্যোৎস্নাকীর

                   জেসমিন জাহান

হঠাৎ ঘুম ভেঙ্গে দেখি
আমার বাগানে তারার আনাগোনা।
ওদের অবাধ ছুটোছুটি- খুনসুঁটি
আর চঞ্চলতায় উন্মনা হয়ে যাই।
চারদিক আলোকিত করে
নরম-কোমল সাইরেন বাজিয়ে,
ঘর ছাড়াদের ডাক দিয়ে যায়।
ওদের শব্দ বুকের ভেতর জাগায়
তীব্র-তীক্ষ্ম এক সুখের ব্যথা ।
আনমনা মন চোখ রাখে বাইরে
ওরা পথ দেখিয়ে নিয়ে চলে
কোন এক অনন্ত লোকে।
মুগ্ধ বিবশ আমি; ক্লান্তিহীন
চোখের পাতায় রাতের কাজল মেখে
দৃষ্টি ছড়াই ঐ শুদ্ধ আলোক বিন্দুতে।
কী এক অব্যক্ত ভাষা ওদের কন্ঠে!
ঝুম-ঝুম-ঝুম শব্দের বুননে,
কাব্যের মালা গেঁথে চলে অবিরাম
ডেকে ডেকে ওরা বলে,
– “এসো, এসো আমাদের দলে”
সম্মোহিত আমি ঘর ছেড়ে
বাইরে এসে দাঁড়াই
জোছনার আলিঙ্গনে নিজেকে সঁপি।
যাযাবর আলোর ক্ষুদ্র মিছিলে
আমিও হয়ে যাই-
এক অনিন্দ্য জ্যোস্নাকীর।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY