ভিন্ন ধর্মী কবিতা “অভিপ্রায়” লিখেছেন ওপার বাংলার কলমযোদ্ধা রুনা দেব চৌধুরী।

307
ভিন্ন ধর্মী কবিতা “অভিপ্রায়” লিখেছেন ওপার বাংলার কলমযোদ্ধা রুনা দেব চৌধুরী।

“অভিপ্রায়”

রুনা দেব চৌধুরী

ইচ্ছেগুলো ইচ্ছে হয়ে রয়েই যায় মনে ,
তাকে বাস্তবে রূপ দিতে গেলে
কেমন যেন হয়ে যায় সব এলোমেলো।
তাই মাঝে মাঝে ইচ্ছে কে সংযত না করে তাকে
মিশিয়ে দিই আমার কল্পনার সাথে ,
ভাসিয়ে দিই মেঘের ভেলায়–
উড়িয়ে দিই তাকে রঙীন ডানা মেলে,
দূর দিগন্তের ওই পারে —–
তবুও –তবুও– ইচ্ছে করে
সমস্ত ঝড় ঝঞ্ঝা সয়ে পাহাড়ের মতো অবিচল শান্ত থাকতে,
সাগরের মতো তীরের অবহেলা সত্ত্বেও বারে বারে
তার বুকে ঢেউ হয়ে আছড়ে পড়তে।,
ইচ্ছে করে বৃষ্টি হয়ে ঝরে সব কান্নার দাগ মুছে দিতে ,
পাহাড়ি ঝর্ণা হয়ে অবিরাম ঝরতে ,
আষাঢ়ের বাদল মেঘে কলাপী হয়ে নিজ পাখা মেলে ধরতে ,
বসন্তদূত হয়ে প্রকৃতিতে সুরের রণন ছড়াতে,
ইচ্ছে করে সব ছেড়ে ওই বাউল হয়ে ঘুরতে ,
ইচ্ছে করে মানুষের মতো মানুষ হয়ে আবার ধরায় ফিরতে ।।
কিন্তু , অভিলাষ সব অভিপ্রায় হয়ে রয়েই যায় মনে ,
দায়িত্ব আর কর্তব্যে ব্যস্ত সন্তর্পনে ।
তাই , কল্পনার এই ডানা মেলে দেখি জগৎটাকে,
ইচ্ছেগুলো ভাসিয়ে দিয়ে ‘শুন্যতার ‘ ই বাঁকে ——-

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY