“আশায় বসতি” কবিতাটি লিখেছেন কলমযোদ্ধা গোলাম কবির

169
Doinik-Alap-Poem-Kobi-কবি-গোলাম-কবির-Kobita-কবিতা-আশায় বসতি

আশায় বসতি

গোলাম কবির

 

আমি কে? নিজেকে প্রশ্ন করলাম- উত্তর আসলো গোলাম,আল্লাহর। প্রথমত আমি ছিলাম রুহের জগতে দীর্ঘকাল অপেক্ষায়, তারপর একদিন ইচ্ছে হলো তাঁর, আমাকে পাঠালেন বাবা মার আনন্দ শয্যায় বাবার ঔরসে মাতৃজঠরের কৌটায়। আবার স্নেহবন্দী হলাম পরম মমতায়, এখানে ছিলাম আমি প্রায় দীর্ঘ দশ মাস হবে, বলা যায় একেবারে লোকচক্ষুর আড়াল নিয়ে মার রক্তমাংশে তিল তিল করে বড় হলাম। এবার আবার তাঁর ইচ্ছা হলো, সেই স্নেহবন্দী কৌটার ঢাকনা খুলে চিৎকার করতে করতে জানান দিয়ে এলাম পৃথিবীতে। এখানে এসে ইচ্ছে স্বাধীনতা ভোগের নামে কত যে অন্যায় অত্যাচার করলাম নিজের সাথে তা মনে করে লিখলে তেঁতুল গাছের পাতা গোনার মতই হবে, আর লজ্জায় মনে হয় যদি এমন কোন জায়গা থাকতো লুকিয়ে থাকতে পারতাম তাঁর ভয়ে, কিন্তু সে জায়গা তো নাই এ ভুবনে আর। তবে তোমাকে ভালবাসি মালিক, তোমার অপার অনন্ত অসীম ক্ষমার আশ্রয় পাবো সেই আশায় বসতি গড়ি, হৃদয় মাঝে তোমাকেই দিয়েছি ঠাঁই। তোমার কাছেই যাবো,তোমাকেই পাবো এই বাসনায় করি জিকিরে নিশিদিন গুজরান।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY