শোকাবহ ১৫ আগস্ট উপলক্ষে কবি সাবিনা আনোয়ার এর দুটি অসাধারণ কবিতা লিখেছেন “হৃদয়ে বঙ্গবন্ধু ” ও “জেগে উঠো মৃত্তিকার স্বাধীনতায় বিশ্বাসীরা ”

553

            ১

হৃদয়ে বঙ্গবন্ধু

                         ——————–
                        সাবিনা আনোয়ার

দেখেছি বাংলা আমার নয়নে
সুজলা সুফলা শষ্য ধাম,
মাটি ও মানুষের মিলন দেখেছি,
দেখেছি অনেক হিংসা বিদ্বেষ
প্রকৃতি দিয়াছে যাকে,
দু- হাত ভরে সম্পদে ভরপুর।
এরই কারণে যুগে যুগে হায়েনারা
বাংলাকে নিয়াছে দখলে,
আর্য,মোঘল,ইংরেজ পাঠানের দল,
কয়েক শতাব্দীর ইতিহাস
যার জন্য হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খৃষ্টান
করিয়াছে প্রার্থনা মসজিদে, মন্দিরে,
বিধাতা আমাদের উদ্ধার করো।
এসেছিলেন লালন গেয়েছিলেন গান,
জাতিকে জাগাবার তরে
এসেছিলেন তিতুমীর বাঁশের কেল্লা নিয়ে
এসেছিলের ক্ষুধিরাম ফাঁসির মঞ্চে,
গেয়েছিলেন স্বদেশের জয়গান।
এসেছিলেন সুবাস যুদ্ধ করার তরে,
এসেছিলেন নজরুল বিদ্রোহী হয়ে
এসেছিলেন রবীন্দ্রনাথ
আমার সোনার বাংলা নিয়ে।
এসেছিলেন শেরেবাংলা, সোহরাওয়ার্দী, ভাসানী আরও অনেকে—
হঠাৎ যেন প্রার্থনা মঞ্জুর হলো
আসিলে তুমি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী শেখ মুজিবুর রহমান।
মৃত্যুর মুখোমুখি দাড়িয়ে হে বীর-
জীবনে কখনও তুমি নত করনি শীর।
উদ্যম সাহসী তুমি তুলনা বিহীন।
ভয়হীন পথচলা ভেঙে বাঁধা বিগ্ন,
বাঙালির মুক্তি ছিলো তোমার চোখের স্বপ্ন।
বর্বর পাক শাসক করে কতো নিপীড়ন,
যৌবন জেলে কাটে ভালোবেসে জনগন।
ফাঁসির মঞ্চেও তুমি নির্ভীক,
মুক্তির নেতা তাই জাতির প্রতিক।
জাগালে পিতা তুমি ঘুমন্ত জাতিকে,
এবার ঘুমাও তুমি ক্লান্তিহীন শান্তিতে।
আছেন তোমার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা –
তার সাথে জেগে আছি আমরা,
অতন্দ্র প্রহরী হয়ে তোমার সোনার বাংলায়.।

                                  ২

জেগে উঠো মৃত্তিকার স্বাধীনতায় বিশ্বাসীরা

——————————
সাবিনা আনোয়ার

পিতা এনে দিলেন স্বাধীনতা,
শৃঙ্খলিত বাঙালি জাতির।
মুক্তির চেতনায় সাড়ে সাত কোটি মানুষ
স্বাধীনতার মর্ম বুঝেছিল তারা,
পরাধীনতার জাঁতাকলে নিষ্পেষিত,
দুইশ তেইশ বছরের গোলামির জিঞ্জির
তোমার বজ্রকঠিন নেতৃত্বে,
ছিন্নভিন্ন হয়ে পড়েছিল পদতলে।

মুক্তির উন্মাদনায় বিভোর ছিল যারা,
পনেরই আগষ্ট —–
পাকিস্তানি নরঘাতকদের পদলেহিত কুকুরের দল
নির্মমভাবে হত্যা করল তোমাকে স্বপরিবারে,
ওরা পাসন্ড বর্বর,বাঁচতে দিলো না –
তোমার মতো একজন মহানায়ক, ছোট্ট শিশু রাসেল আর গর্ভবতী মহিলা,
রেহাই পেলো না ওদের নিষ্ঠুর রোষানল থেকে।

দেখেছি আমি বত্রিশ নাম্বারে প্রতিটি জায়গায়
তাজা রক্তের ছোপ ছোপ দাগ এখনও মেটেনি,
পৃথিবীর নিষ্ঠুরতম অপরাধের জলন্ত প্রমাণ,
তাই আজও কাঁদে বাঙালি বুকফাটা আর্তনাদে,
এখন তোমার বিশাল নেতৃত্বের বড় প্রয়োজন ছিল,
মীর জাফরের দল বাংলার প্রদীপ নিভিয়ে দিলো।

ইতিহাস থেকে তোমার নাম মুছে দিতে চাইল,
— পারল কি তারা?
মুজিব চিরভাস্বর উজ্জ্বল আলোকবর্তিকা
বাংলার ঘরে ঘরে জীবনের ফল্গুধারা।

এদেশের আকাশে বাতাসে ধ্বনিত শেখ মুজিবের নাম।
মীর জাফরেরা আজ বড় কোণঠাসা,
চিত্তসুখে আয়েশ নয়—
এদেরকে সমুলে করতে হবে বিনাশ,
এটাই হোক পনেরই আগষ্টের চেতনা,
জেগে উঠো মৃত্তিকার স্বাধীনতার বিশ্বাসী
জনতা যারা মুক্তমনা।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here