সাহিত্যের অন্যতম সারথি- লাবণ্য শাহিদার ভিন্নধর্মী কবিতা“বঞ্চনা-হতে পারত ব্যঞ্জনা”

333
লাবণ্য শাহিদার ভিন্নধর্মী কবিতা “বঞ্চনা-হতে পারত ব্যঞ্জনা”

বঞ্চনা- হতে পারত ব্যঞ্জনা
লাবণ্য শাহিদা

আজ
আজ সারাদিন ভেসে গেছে
তোমার স্মৃতির স্রোতে,
এক উনুনের গল্পগুলো ছড়িয়ে গেছে
দুই শহরের কোণে!

আগামী
হাওয়ার তরে ভাসিয়ে দিলাম
আগাম দিনের বুলি,
অব্যক্ত সব কথাগুলো চিঠি হবে
এবার সামনে আগামী!

ক্ষত
প্রলেপ দিয়ে বাঁচতে চাওয়া
ক্ষতর মিছিল জুড়ে,
আদতে সব চোখের ফাঁকি
ক্ষতের মাঝেই ব্যাথা স্থায়ী বুকে!

তুমি
এত যে ডাকো, চাইলে ঠাঁই দিতে পারবানি?
ভীষণ জ্বরে কাঁপি যখন রাতে, বুকে ধরবানি?

নেশা
থেকে যাওয়ার এই নেশাতে জুড়ে আছিস আয়নায়,
এক এক করে বছর যাবে, থাকিস জুড়ে যেমন থাকে জোড়া ময়না!

অবাধ্য
হুট করে যদি বলি, ভাসবানি যেমন ভাসে অলকানন্দা,
বলবি কী, হ থাকুম পাশে অভিমানের বুদবুদ ভাইঙ্গা!

বাজু
এত যে জ্বালা দাও, প্রতিবার ডুবিয়ে দাও সিক্ত চুমুতে
বুকের বা’দিক কম্পনে ঝড় উঠে তোমার পরশের বাজুতে!

পরিমাপ
একদিন চোখের সমস্ত জল নিয়ে তসবি বানাবো
ওজনে দেখো, ভালবাসা আয়তনে জপে না!

3 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here