পোশাকী জীবনের বাইরের যে প্রাকৃতিক জীবন, তাকেই আঁকড়ে বাঁচতে চান কবি।তাই লিখেছেন তারুণ্যের কবি রেবেকা রহমান এর গদ্য কবিতা “আয়ুর্বেদিক সুখ”

272
তারুণ্যের কবি রেবেকা রহমান

আয়ুর্বেদিক সুখ

                         রেবেকা রহমান

নিরুচ্চার অভিজাত্যে নিয়েই স্বচ্ছন্দ থাকাটাই আমার পচ্ছন্দ, এক্সপোজ ব্যাপারটা এত খামখেয়ালি লাগে! হয়তো নিজেকে এত বড় করে ভাববার কোনই অবকাশ নেই। হুটহাট এসে পড়ে, শহরের উজ্জ্বল ঝাড়বাতিময় কর্নারে! নিজেকে খাপ খাওয়াতে পারিনা, কুঁকড়ে যাই। কাঁটা চামচে চাওমিন খেতে গিয়ে ছিটকে পড়ি! রুমালের বদলে ট্যিস্যু, ভোতা নাইফ!! নিজেকে বড্ড বেমানান লাগে যখন দেখি তোমার জিম করা পেশী। রোষ্টেড এলমন্ডের সাথে চিলড হুইস্কির অভ্যস্ততা।

মফস্বলি বাতাসে ঘুরে দাঁড়াই। খুঁজে নেই আমার আয়ুর্বেদিক সুখ জুম শাড়ির কুঁচিতে….

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY