জীবন বোধের তাড়না থেকে তারুণ্যের কবি নাসরীন_জাহান_রীণা লিখেছেন কবিতা “সিঙ্গেল_প্যারেন্টস_১”।

215
তারুণ্যের কবি নাসরীন_জাহান_রীণা

সিঙ্গেল_প্যারেন্টস_১

                 নাসরীন_জাহান_রীণা

ক্যাঙ্গারু পকেটই আজ
বাবা-মায়ের কোল,
সেথায় ঘুমায় মাতৃহারা
ছোট্ট শিশুর বোল ।
অনেকখানি কান্নারজলে
ভিজে বাবার বুক,
বুকের তাপে যায় ঘুমিয়ে
নিস্পাপ ছোট্ট মুখ ।
ছাত্র পড়ান ; ক্লাস করে যান
বুকে নিয়ে সন্তান,
জন্ম দিয়েই ঘটলো মাতার
অকাল প্রয়াণ ।
সেই যে সেদিন হাসপাতালে
হাতটি ধরে বলে ,
“এখানটায় বসো তুমি
যেয়ো না ফেলে চলে ।
তুমি আমার থাকলে পাশে
ভরসা যে পাই ,
তুমি ছাড়া আমার সখা
আর তো কেউ নাই । ”
” আমি তো সেই ছিলাম পাশে
তুমিই ফাঁকি দিলে ,
একা করে পাহাড়সম
ব্যথা দিলে ঢেলে । ”
ছোট্ট তিশা প্রতিটি ক্ষণ
মা’ মা’- করে ডাকে,
কি দিয়ে বুঝাই তারে
মরণ নিলো মাকে ।
তার কান্নাতে অন্তর আমার
হু-হু করে উঠে ,
অসহায় এক বাবা আমি
চোখে তারা ছুটে ।
ঘুমের ঘোরে কতবার যে
গতর চোষে তিশা,
মাতৃস্তনের বিকল্প খুঁজে
না পাই আমি দিশা ।
প্রতিদিনের প্রতিক্ষণে
মা’র যে প্রয়োজন,
মা হারা সন্তানের বাপছাড়া
বুঝে কোন জন ?
তিশার যত্ন, পড়াশোনা
আর যে সময় দেয়া,
সকল কর্মে ডুবে নিজের
হয় না যত্ন নেয়া ।
জ্বরের তোড়ে প্রলাপ বকে
যখন তিশামনি ,
ব্যস্ত যে হই তিশার সেবায়
নিজ অসুখ না গণি ।
কখনও সাজি বাবা আর
কখনও বা মা ,
লালন-পালনে বড় করা
মুখের কথা না ।
খাবার খাওয়াই, গোসল করাই
তারপরেতে কর্ম ,
দীর্ঘশ্বাসেই জীবন এখন
কে বুঝবে তার মর্ম !

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY