“বলয় বৃত্ত”লিখেছেন সভ্যতা গড়ার অন্যতম সারথি কবি আয়েশা মুন্নি।

397
কবি-আয়েশা-মুন্নি

বলয় বৃত্ত

      আয়েশা মুন্নি

বহতা জীবনের অনাবিদ্ধ স্রোতে
নতুন মায়ার ছায়া।
মুদ্রিত পৃষ্ঠার ভাঁজে সাজিয়েছি
গোলাপের লাল পাপড়ি।
অনুভূতি জাগাবে বলেই কি ছিল তোমার আঙ্গুল ছোঁয়ার বাহানা?
হাতের স্পর্শে কি বুঝাতে চেয়েছ, দূরত্বের পরিধি?
ভালবাসার তৃষ্ণা কিংবা তোমার অনুপ্রবেশ….!
অব্যক্ত কথার আস্ফালনে আকুলতা বা শিহরণ?
তোমার চোখের দৃষ্টিনন্দনে ছিল নিমগ্নতার শিল্পকলা,
গোপন বিশ্বাসের অক্ষরে অক্ষরে আবেগী মনের কথোপকথন।
ডাহুক ডাকা নিঃস্তব্দ দুপুরে
নীরব চুম্বনের গোপন অভিসারে
ঠোঁটের রক্তিম ভাঁজে এঁকে দিলে শৈল্পিক প্রেমের প্রতিবিম্ব।
আমার কবিতার পংঙতিমালা আজও উন্মুখ, উন্মুক্ত।
মোহঘোরের দূর্ভেদ্য দূরত্বে
তানপুরাটা আজও বাজে,
আজও হর্ষ সুর তোলে হৃদয় ভায়োলিন।
নৈঃশব্দতার অনাবিল স্রোতে
হৃদয় ছুঁয়েছে হৃদয়ের ভাঁজে,
তাই অসম ভালবাসার সুন্দর ধ্রুবলোকে আমার ক্ষণিক বসবাস।
তুমি থাকবে তারকালোকের ছায়াপথের বলয় বৃত্তে….
দূরত্বের সীমানায় সহস্র মাইল …।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here