“অধরা ” কবিতাটি লিখেছেন সাহিত্যের অন্যতম সারথি ফাহমিদা সুহা

186

অধরা

        ফাহমিদা সুহা

পাহাড়ি পথ কখনো সমতল,তো কখনও অসমতল |
ফুলে-ফুলে পাখি কুঞ্জন কলোরব,আহ্লাদে গান গায় কাকলিরা সব |
প্রজাপ্রতিরা দল বেঁধে সব মগ্ন,লতাপাতা মাথা দুলিয়ে জানায় খুশির লগ্ন!

আমি প্রকৃতির রূপরস বাক্সবন্দি করছি-
ফ্রেমের চার কণিকায়, আটকে রাখছি-
অনুপম মহিমায় |

আচমকা এলো বিজলির আলো,কেশ এলো উড়ে কালো |
রাঙা গায় সাওঁতাল নিয়মে শাড়ি,আমার মস্তিষ্ক লিখছে নতুন গানের সাড়ি!
বনলতা পরেছে গন্ড কূলে,মালা নাম না জানা ফুলে |

আমার দেহকোষ যেনো নির্জীব হলো,
অনুভূতিরা ঘোর চোখে প্রফুল্ললোচনে হানা দিলো!
নেত্রপল্লব স্থির অনন্তকাল এই দৃশ্য দেখতে,
নতুন কিশলয় যেনো তার অঙ্গ চলনে মেতে!

বিজন পাহাড়দের সব অদৃশ্য চোখ-
তার রুপ গিলে চলে!
আমি কেবল হারিয়েছি তাকে-নৌকা মাঝে জলপ্রপ্রাত সঙ্গি বলে…

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY