বাংলা সাহিত্যের অন্যতম সারথি কবি- গোলাম কবির’র নির্বাক অন্তরের কবিতা “বৃষ্টি এলে”

280
গোলাম কবির'র নির্বাক অন্তরের কবিতা “বৃষ্টি এলে ”

” বৃষ্টি এলে “
।। গোলাম কবির ।।

সবাই যখন বৃষ্টি এলে ছাতা খুঁজে,
আমি তখন আকুল হয়ে বৃষ্টিজল
সারাটি গায়ে মাখবো বলে মুখিয়ে থাকি।

বৃষ্টি যখন অনেক দূরের পথ হেঁটে এসে
মেঘের ভেলায় চেপে গুড়গুড় করতে করতে
আমার দুয়ারে দাঁড়ায়, আমি তখন কি করে
ওকে সরিয়ে দিই বলো! তাছাড়া, বৃষ্টি তো
আমার বু্কের ভিতর সারাটি দিনই ঝরে
কখনো আনন্দে আবার কখনো বেদনায়।

জানো, বৃষ্টি এলে আমার প্রিয় নদীটির বুকে
যৌবনের ঢল নামে, ও তখন একজন
ষোড়শী তন্বীর মতো উচ্ছল এবং চঞ্চল
হয়ে ওঠে, ইচ্ছে হলেই আমাকে সহ
এই পুরো তল্লাটই ভাসায়, ডুবায়।

বৃষ্টি এলে আমার মন কেমন করে!
বৃষ্টি এলে কখনো আমার মন
অকারণেই খারাপ হয়ে যায়,
নিজেকে খুব দুঃখী দুঃখী মনে হয়!
আবার কখনো আমার বৃষ্টি বিলাসী মন
নীল শাড়ি পরা তোমাকে খুঁজে বেড়ায়,
ভিজতে চায় ভালবাসার প্লাবনভাসা জলে!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here