হাড় কাঁপানো শীতের পর ফাল্গুনী বাতাস মানুষের মনকে উন্মনা করে দেয়। মনের অজান্তেই গুনগুন করে সুর সাধে সে। বসন্তের প্রকৃতি মানুষের মনে যে প্রভাব ফেলে তার এক ফোঁটা নির্যাস ‘বসন্ত এলো মনোবনে’ কবিতায়..লিখেছেন কবি জেসমিন জাহান

252
কবি জেসমিন জাহান

বসন্ত এলো মনো বনে

                       জেসমিন জাহান

বাতাসের গলা সাধে বসন্ত গীত
লোকালয় ছেড়ে গেছে অভিমানী শীত,
কুয়াশার পর্দাটা কেঁপে কেঁপে ওঠে
মৌ লোভী মৌমাছি ফুলে ফুলে ছোটে।

যেদিকে তাকাই দেখি রংয়েরই বাহার
আকাশের গায়ে নীল মেঘের পাহাড়,
উৎসুক চোখে বসে মাস্তুলে কাক
উড়ে যায় ভিনদেশী পাখিদের ঝাঁক।

ফাল্গুনী বাঁশি বাজে মনের ভেতর
আনমনে দোলা দিয়ে যায় চেনা সুর,
সূর্যটা ঢলে পড়ে লাজে ঢাকে মুখ
অজানিত সুখে তার কেঁপে ওঠে বুক।

আকাশ মাটিরে ডাকে,”সই কি যে করি?”
ফাগুন আগুনে বুঝি আজ পুড়ে মরি,
বিটপী শাখায় লাগে বিহগের সুর
মন কেনো যেতে চায় দূর….বহুদূর।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY