ভিন্ন ধর্মী লেখা “পানতুম: রাই কিশোরী ” লিখেছেন কলমযোদ্ধা হামিদা আনজুমান

332
“পানতুম: রাই কিশোরী ” লিখেছেন কলমযোদ্ধা হামিদা আনজুমান

পানতুম: রাই কিশোরী

            হামিদা আনজুমান

ফুলের ঝালড় ভরা জারুল গাছে
সেই গাঁয়ে এক রাই কিশোরী ছুটে
খোলা মাঠে সবুজ বাতাস নাচে
সোনালু ফুল দোলায় মনটি লুটে।

সেই গাঁয়ে এক রাই কিশোরী ছুটে
গাঁয়ে আসে রাঙা সকাল বেলা
সোনালু ফুল দোলায় মনটি লুটে
সূয্যি করে পূব আকাশে খেলা।

গাঁয়ের আসে রাঙা সকাল বেলা
শান্ত দুপুর সাঁতার গাঙের জলে
সূয্যি করে পূব আকাশে খেলা
পাখপাখালি, ঝিঁঝিঁ, সুরে চলে।

শান্ত দুপুর সাঁতার গাঙের জলে
হাতছানিতে বিকেল নামে খেলার
পাখপাখালি, ঝিঁঝিঁ, সুরে চলে
বউচি খেলার শৈশব সে নেই আর।

হাতছানিতে বিকেল নামে খেলার
গোধূলিতে রাঙা আলোয় চড়ে
বউচি খেলা শৈশব সে নেই আর
ক্লান্তি মেখে কৃষক ফেরে ঘরে।

গোধূলিতে রাঙা আলোয় চড়ে
আঁধার নামে চুপটি করে গাঁয়ে
ক্লান্তি মেখে কৃষক ফেরে ঘরে
নীড়ে ফেরার তাড়ায় পায়ে পায়ে।

আঁধার নামে চুপটি করে গাঁয়ে
জ্যোৎস্না রাতে অবাক ভালো লাগা
নীড়ে ফেরার তাড়ায় পায়ে পায়ে
লাউয়াঢুপি খেলায় রাত্রি জাগা।

জ্যোৎস্না রাতে অবাক ভালো লাগা
কিচ্ছা শুনে কি ঘোর চোখে মেশে
লাউয়াঢুপি খেলায় রাত্রি জাগা
দাদীর ওমে মজার ঘুমের দেশে।

কিচ্ছা শুনে কি ঘোর চোখে মেশে
সেসব স্মৃতি মনের ঘরে আছে
দাদীর ওমে মজার ঘুমের দেশে
ফুলের ঝালড় ভরা জারুল গাছে।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY